রবিবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

টানা তিনদিন ২ হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে দুই মাসের বেশি সময় দেশে প্রতিদিন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দেড় হাজারের আশপাশে থাকলেও সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের শঙ্কা জাগিয়ে টানা তৃতীয় দিনের মতো দুই হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত হওয়ার খবর এসেছে। আজ বুধবার বিকেলে সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর দেশে করোনাভাইরাসের সর্বশেষ এই তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়, গত একদিনে দেশে আরও ২ হাজার ১১১ জনের মধ্যে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তাতে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ লাখ ৩৮ হাজার ৭৯৫ জন হলো। আর গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২১ জনের মৃত্যু হওয়ায় দেশে মোট মৃতের সংখ্যা ৬ হাজার ২৭৫ জনে দাঁড়িয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার ২ হাজার ২১২ জন এবং সোমবার ২ হাজার ১৩৯ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ার কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তার আগের দশ সপ্তাহে দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দুই হাজারের নিচেই ছিল। তবে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশ সংক্রমণ বাড়তে থাকায় এবং শীতের আগে আবহাওয়ায় পরিবর্তন আসায় বাংলাদেশেও সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের বিষয়ে সতর্ক করে আসছিলেন বিশেষজ্ঞরা।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে, গত এক দিনে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ১ হাজার ৮৯৩ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এতে সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে ৩ লাখ ৫৪ হাজার ৭৮৮ জন হয়েছে।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত ৮ মার্চ, তা ২৬ অক্টোবর ৪ লাখ পেরিয়ে যায়। এর মধ্যে গত ২ জুলাই ৪ হাজার ১৯ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ শনাক্ত। প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ৪ নভেম্বর তা ছয় হাজার ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৩০ জুন এক দিনেই ৬৪ জনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ মৃত্যু।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় বিশ্বে শনাক্তের দিক থেকে ২৪তম স্থানে আছে বাংলাদেশ, আর মৃতের সংখ্যায় রয়েছে ৩২তম অবস্থানে। বিশ্বে এখন পর্যন্ত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ইতিমধ্যে ৫ কোটি ৫৬ লাখ পেরিয়েছে; মৃতের সংখ্যা ১৩ লাখ ৩৮ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত