শনিবার, ৩১শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

বিষখালী নদীতে গোলাগুলি, বিপুল অস্ত্র জব্দ

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলা এলাকার বিষখালী নদীর মোহনায় কোস্টগার্ড সদস্যদের সঙ্গে অস্ত্র কারবারিদের গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। পরে সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও রাম দা উদ্ধার করেছে দক্ষিণ স্টেশন কোস্টগার্ড। এ সময় একটি ইঞ্জিন চালিত নৌকাও জব্দ করে সদস্যরা। আজ মঙ্গলবার ভোর ৪টার দিকে বিষখালীর লালদিয়ার চর থেকে এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

আজ মঙ্গলবার ভোর ৪টার দিকে বিষখালীর লালদিয়ার চরে এ ঘটনার পর সেখান থেকেই এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এ তথ্য নিশ্চিত করেন দক্ষিণ স্টেশন কোস্টগার্ড কমান্ডার লেফটেন্যান্ট মেহেদী হাসান।

আমাদের সময়কে কমান্ডার লেফটেন্যান্ট মেহেদী জানান, একদল অস্ত্র কারবারি অস্ত্র নিয়ে উপকূলের দিকে আসছে- এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাতে অভিযান শুরু করে কোস্টগার্ডের দুটি ইউনিট। ভোর সাড়ে তিনটার দিকে সন্দেহ হওয়ায় একটি দ্রুতগামী মাছ ধরার ট্রলারকে ধাওয়া দেয় কোস্টগার্ড। এ সময় চালক দ্রুত গতিতে ট্রলারটির লালাদিয়ার চরের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে শুরু করে। সেটিকে থামাতে কোস্টগার্ড ১১ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে।

দক্ষিণ স্টেশন কোস্টগার্ড কমান্ডার লেফটেন্যান্ট আরও জানান, অবস্থা বেগতিক দেখে ট্রলার রেখে লাল দিয়ার চরে উঠিয়ে বনের মধ্যে পালিয়ে যায় অস্ত্র কারবারিরা। পরে তল্লাশী করে ট্রালারের মাছ রাখার ককশিটের ভেতর থেকে ২১টি অস্ত্র ও ১১টি রাম দা উদ্ধার করা হয়। এরমধ্যে একটি রিভলবার ছয়টি পিস্তল এবং ১৪ টি একনলা বন্দুক ছিল। ট্রলারটি জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি বলেও জানান মেহেদী।

কোস্টগার্ড কমান্ডার লেফটেন্যান্ট মেহেদী বলেন, ইলিশ প্রজননের ২২ দিনের মৎস্য অবরোধের পূর্বে নদনদী থেকে সকল মাছ ধরার ট্রলারগুলোকে আজ মঙ্গলবারের মধ্যে ঘাটে ফিরে আসতে বলা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, সুন্দরবনে জলদস্যুরা সংঘটিত না হতে পেরে তারা উপকূলে ফিরে আসছিল। জব্দ করা অস্ত্রগুলো পাথরঘাটা থানায় হস্তান্তর করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত