রবিবার, ২৪শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

আগামী সপ্তাহের বিতর্কে সশরীরে যোগ দেবেন ট্রাম্প

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রার্থীদের পরবর্তী বিতর্কে ডোনাল্ড ট্রাম্প সশরীরে উপস্থিত থাকবেন বলে জানানো হয়েছে। করোনার সংক্রমণ থেকে ট্রাম্প এখনো সুস্থ হয়ে না উঠলেও গতকাল মঙ্গলবার তাঁর প্রচার শিবির থেকে এ কথা বলা হয়।

ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্রেটিক প্রার্থী জো বাইডেন আগেই জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যসেবীরা অনুমোদন দিলে তিনি দ্বিতীয় বিতর্কে উপস্থিত থাকবেন।

আগামী ১৫ অক্টোবর মিয়ামিতে যুক্তরাষ্ট্রের দুই প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর মধ্যে দ্বিতীয় বিতর্ক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

গত শুক্রবার ট্রাম্প করোনায় সংক্রমিত হয়ে পড়লে বিতর্ক ও তাঁর নির্বাচনী প্রচার নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দেয়।

ট্রাম্প তিন রাত হাসপাতালে কাটিয়ে ইতিমধ্যে হোয়াইট হাউসে ফিরে গেছেন। তাঁর চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের উপসর্গগুলোর উপশম ঘটেছে। তিনি সুস্থ আছেন।

দ্বিতীয় বিতর্ক ভার্চুয়াল হবে না কি সশরীরে হবে, এ নিয়ে জল্পনা-কল্পনার মধ্যে মঙ্গলবার ট্রাম্পের প্রচার শিবির এ বিষয়ে বক্তব্য দিল।

দ্য হিল অনলাইনকে দেওয়া বিবৃতিতে ট্রাম্পের প্রচার শিবিরের কমিউনিকেশনস ডিরেক্টর টিম মুর্তোফ জানান, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সশরীরে দ্বিতীয় বিতর্কে উপস্থিত থাকার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেছেন।

যদিও পরিষ্কার নয়, দ্বিতীয় বিতর্কে উপস্থিত থাকার জন্য ১৫ অক্টোবর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠবেন কি না।

উপসর্গ না থাকলেও কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিকে একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত আইসোলেশনে থাকতে হয়।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গত ২ অক্টোবর তাঁর সংক্রমণের কথা জানান। ঠিক কবে তিনি সংক্রমিত হয়েছেন, তাঁর সবশেষ পরীক্ষার ফলাফলের সময় ইত্যাদি সম্পর্কে স্পষ্ট করে কিছুই জানানো হয়নি। ফলে এ নিয়ে নানা সন্দেহ বিরাজ করছে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আগে নিজেই এক টুইট বার্তায় বলেছেন, তিনি ১৫ অক্টোবর সন্ধ্যায় মিয়ামিতে অনুষ্ঠেয় বিতর্কের দিকে তাকিয়ে আছেন। বিতর্কটি দুর্দান্ত হবে বলে তাঁর আশা।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের (সিডিসি) নির্দেশনা অনুযায়ী, জ্বরসহ অন্য কোনো উপসর্গ না থাকলেও করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ ফল আসার পরও অন্তত ১০ দিনের জন্য রোগীকে আইসোলেশনে থাকতে হয়। না হলে অন্যদের তাঁরা দ্বারা সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের উপসর্গ ও পরীক্ষার ফলাফলের সময় সম্পর্কে কোনো পরিষ্কার ধারণা কারও নেই।

চিকিৎসকেরা বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সুস্থ হয়ে উঠছেন। যদিও আগামী সোমবার পর্যন্ত তাঁকে পর্যবেক্ষণে থাকতে হবে বলে মার্কিন সংবাদমাধ্যম খবর বেরিয়েছে।

ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন আগেই বলেছেন, মিয়ামিতে অনুষ্ঠেয় টাউন হল স্টাইলের বিতর্কে তিনি যোগ দেবেন। যদি বিশেষজ্ঞরা বলেন তা নিরাপদ, তাহলে তাঁর কোনো আপত্তি নেই। বিশেষজ্ঞরা যা ভালো মনে করবেন, সে অনুযায়ী তিনি এগিয়ে যাবেন।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত