শুক্রবার, ১লা অক্টোবর, ২০২০ ইং

বেলজিয়ামে মের্কের করোনা টিকার পরীক্ষা শুরু

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান মের্ক অ্যান্ড কোম্পানি ইনকরপোরেশন করোনা টিকার প্রাথমিক ধাপের পরীক্ষা শুরু করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি ডেটাবেইস ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালস ডটগভের তথ্য অনুযায়ী, কোভিড-১৯ টিকা পরীক্ষায় স্বেচ্ছাসেবী নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু করেছে মের্ক।

ওয়ালস্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে জানানো হয়, মের্ক তাদের টিকাটি বেলজিয়ামে পরীক্ষা করতে যাচ্ছে। শুরুতে ২৬০ জন স্বেচ্ছাসেবীর ওপর এই টিকার পরীক্ষা চালানো হবে।

এ মাসের শুরুতে মের্কের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কেনিথ ফ্রাইজার বলেছিলেন, শিগগিরই তাঁর প্রতিষ্ঠান কোভিড-১৯–এর টিকা মানুষের ওপর পরীক্ষা শুরু করতে যাচ্ছে। তাঁরা একাধিক টিকা নিয়ে কাজ করছে। এ বছরের শেষ দিকে পৃথক আরেকটি টিকা পরীক্ষা করা হবে। তাঁদের টিকাটি ভাইরাস প্রতিরোধে কার্যকর কি না, তা জানা যাবে এ পরীক্ষায়।

ওয়ালস্ট্রিট জার্নালকে মের্কের কর্মকর্তারা জানান, টিকা পরীক্ষার কার্যক্রম শুরু হয়ে গেছে। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানায়নি তারা। পরীক্ষার প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে টিকাটি নিরাপদ কি না এবং তা প্রতিরোধ প্রতিক্রিয়া দেখায় কি না, তা দেখা হবে।

গবেষণাপ্রক্রিয়া ২০২২ সালের এপ্রিল মাসে শেষ হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর আগেও পরীক্ষা শেষ হয়ে যেতে পারে। কয়েকটি টিকার প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা দু-এক মাসের মধ্যেই শেষ হয়েছে।

মের্কের পরীক্ষামূলক টিকাটি তৈরিতে হাম সৃষ্টিকারী ভাইরাসটির দুর্বল সংস্করণ ব্যবহার করা হবে। এটি করোনার স্পাইক প্রোটিনের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলবে। গত মে মাসে মের্ক জানিয়েছিল, তারা অস্ট্রিয়ার থেমিস বায়োসায়েন্সকে অধিগ্রহণ করে টিকা তৈরি করবে।

মের্ক এমন একটি টিকা তৈরি করতে চাইছে, যাতে একটি মাত্র ডোজেই ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ সক্ষমতা তৈরি হয়। এ টিকা তৈরি পরীক্ষিত টিকাপ্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে, যাতে টিকা তৈরির কাজ সহজ হয়।

মের্ক যেখানে প্রচলিত টিকা তৈরির পথে হাঁটছে, সেখানে টিকা প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ফাইজার, বায়োএনটেক, মডার্না হাঁটছে জিনভিত্তিক এমআরএনএ টিকা তৈরির পথে। এ টিকাগুলোর দুটি ডোজ প্রয়োজন হবে।

অন্যদিকে, যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও অ্যাস্ট্রাজেনেকা তাদের টিকা পরীক্ষার তৃতীয় ধাপে রয়েছে। তবে চলতি সপ্তাহে টিকাটি প্রয়োগে একজন স্বেচ্ছাসেবী অসুস্থ হয়ে পড়ায় পরীক্ষা সাময়িক বন্ধ রয়েছে।

মের্ক তাদের টিকা পরীক্ষার জন্য ১৮ থেকে ৫৫ বছর বয়সী স্বেচ্ছাসেবীদের বেছে নিচ্ছে। পরীক্ষার জন্য কাউকে এক ডোজ আবার কাউকে দুই ডোজ দিচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত