মঙ্গলবার, ২০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

প্রধানমন্ত্রীকে লাল কার্ড প্রদর্শন করলেন জনগন ও সরকার দলীয় সমর্থকরা

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

জাতীয় ছাত্র সমাজ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি সৈয়দ মো ইফতেকার আহসান তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে বলেছেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ঢাকা-১০ এর সাধারন জনগন ও সরকার দলীয় সমর্থকরা লাল কার্ড প্রদর্শন করেছেন।

অনলাইন পাঠকদের জন্য ফেসবুক পোস্ট হুবহু তুলে ধরা হলো :

ঢাকা ১০ সংসদীয় আসনের সরকার দলীয় প্রার্থী মোট ভোটের ৫%(১৫,০০০ হাজার) ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।ঐ ব্যাবসায়ী ব্যক্তিটিকে নির্বাচিত বললে গোটা সংসদীয় আসনের জনগনকে অপমান করা হবে। যে আসনে খোদ প্রধানমন্ত্রী নিজেই ভোটার এবং আজ ভোট প্রদান করেছেন সেখানেই এই দূর অবস্থা।

আমরা জানি যে, সাধারণ জনগণ ভোটের উপর খুবই বিরক্ত।কেন বিরক্ত তার বিবরণে না হয় না-ই গেলাম। তবে সরকার দলীয় সমর্থকদের উচিৎ ছিল মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে সম্মান দেখিয়ে অন্তত ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট প্রদান করা।সরকারের মন্ত্রী, এমপি ও দলীয় নেতাদের ধারালো বক্তৃতায় প্রায়ই শুনি দেশের ৮০%জনগন সরকারের পক্ষে আছে বা ৮০% জনগণই আওয়ামিলীগ করেন। তাহলে আজকের নির্বাচনে তারা ভোট না দিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে অসম্মান করলেন কেন।এটা লাল কার্ড প্রদর্শনেরই সামিল।

সাধারন নির্বাচনের পর একটি দলের সরকার গঠন করতে হলে জাতীয় সংসদে ৩০০ আসনের মধ্যে ১৫১ আসন প্রয়োজন। মানে ঐ দলকে অবশ্যই সংখ্যা গরিষ্ঠতা অর্জন করতে হবে।তাহলে ৫% ভোট পেয়ে একজন ব্যক্তি কিভাবে ঐ সংসদে আইন প্রনেতা হবেন তা বোধগম্য নয়। তাকে অবশ্যই সংখ্যা গরিষ্ঠ জনগণের ভোটে নির্বাচিত হতে হবে।

অন্যথায় এ অবস্থা চলতে থাকলে আগামীতে জাতীয় সংসদে যারা ২০/৩০ টি আসন পাবে তারা অন্য সংখ্যা গরিষ্ঠ দলকে গায়ের জোরে সংসদ থেকে বের করে নিজেরাই সরকার গঠনের অপচেষ্টা করবে।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত