বুধবার, ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

‘১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মক্ষণে সারাদেশে একসঙ্গে ফুটবে আতশবাজি’

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

আসছে ১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মক্ষণ রাত ৮ টায় সারাদেশে একসঙ্গে আতশবাজি ফুটানো হবে। দিনব্যাপী থাকবে দলীয় নানা কর্মসূচী।

মঙ্গলবার (১০ মার্চ) দুপুরে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলীয় এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

কাদের জানান, করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠান কাঁটছাট করা হলেও তার জন্মক্ষণ রাত ৮ টায় সারাদেশে একসঙ্গে আতশবাজি ফোটানো হবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ১৭ মার্চের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আপাতত স্থগিত করে পুনঃর্বিন্যাস করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন আমরা চাই জনগণ যাতে কোনোভাবেই ক্ষতিগ্রস্ত না হয়। জনগণের মঙ্গলের কথা এবং মানবিক বিষয় চিন্তা করে কর্মসূচি নতুনভাবে সাজানো হয়েছে।

পুনঃর্বিন্যাস কর্মসূচি তুলে ধরে কাদের বলেন, ১৭ মার্চ সকাল সাড়ে ৬ টায় আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে ও সারাদেশে সকল সহযোগী সংগঠনের সকল কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন। সকাল ৭ টায় বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গনে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন। সারাদেশের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী সমর্থক শুভানুধ্যায়ী সকলেই বিশেষ করে, আমাদের জেলা-মহানগর এমনকি উপজেলা পর্যন্ত কমিটিগুলো একইরকম কর্মসূচি পালন করবেন। সকল সহযোগী সকালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানাবেন।

এছাড়া সারাদেশের মসজিদ, মন্দির প্যাগোডাসহ সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান বিশেষ প্রার্থনা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করবে। ১৭ মার্চে সারাদেশে দুস্থ এতিমদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হবে। সারাদেশে দলীয় কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচার এবং আলোক সজ্জা থাকবে। সন্ধ্যা ৬ টার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির আয়োজনে যে কর্মসূচি রয়েছে তা একসঙ্গে সকল গণমাধ্যম প্রচার করবে। দেশবাসীকে ঘরে বসে সেই আয়োজন দেখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যোগ করেন কাদের।

কাদের বলেন, আমরা জনগণকে আশ্বস্ত করতে চাই। এটা নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নাই। এক জায়গায় অধিক লোক সমাগমে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি সৃষ্টি করতে পারে বলে এ বিষয়ে সবাইকে সর্তক করে দিতে চাই। এজন্য বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মানুষের জনস্বার্থে অধিক লোক সমাগমের সকল কর্মসূচি আপাতত পরিহারের পরামর্শ দিয়েছেন। দলগতভাবে সরকারি ভাবে দলের সকল আয়োজন পুনঃর্বিন্যাসে সীমিত আকারে নির্দেশ দিয়েছেন। বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের উন্নতি হলে বিশ্বনেতাদের উপস্থিতিতে পরে যেকোনো সময় এই কর্মসূচি পুনরায় আয়োজন করা হবে। তবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিদেশি অতিথিদের আসার বিষয়টি আপাতত স্থগিত করা হয়েছে। এছাড়া, প্যারেড গ্রাউন্ডের অনুষ্ঠান স্থগিত করা হয়েছে। সময়সুযোগ বুঝে এটি পরেও করা যাবে।

এবার বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ইতিহাসের বিশেষ দিক। এবার বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী এমন দিনে হচ্ছে সেই মঙ্গলবার। যে মঙ্গলবারে বঙ্গবন্ধুর জন্ম হয়েছিল। ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ রাত ৮ টায় বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা মহানায়ক বঙ্গবন্ধু জন্মগ্রহণ করেছিলেন। এবার বর্নাঢ্য আয়োজন করতে পারলে ভালে লাগত। দেশের মানুষও এমন দিনের অপেক্ষা করছিল। পরিস্থিতির বাস্তবতা ভিন্ন বিষয়। বঙ্গবন্ধু কন্যারা বিষয়টি নিয়ে নতুনভাবে ভেবেছেন। তারা ভেবেছেন মানবতার চেয়ে জনস্বার্থের চেয়ে অন্য কোনো বিষয় এই মুহুর্তে প্রাধান্য পাওয়া উচিত না। যে কারণে বিপুল উৎসব মুখের আয়োজন কাঁটছাট করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এটার সাথে রাজনীতির কোনো সংযোগ নেই। বিদেশি অতিথিরা কেউ প্রোগ্রাম স্থগিত করেননি। কাজেই বঙ্গবন্ধু কন্যা যে কর্মসূচি পুনঃর্বিন্যাস করেছেন তাকে অন্যভাবে উপস্থাপন করতে অনেকে চেষ্টা করছেন। এরমধ্যে রাজনীতি এনে তাদের চিরাচরিত অভ্যেস অনুযায়ী রাজনীতির অনুপ্রবেশ ঘটাতে চাইছেন। এটা নিয়ে বিভিন্ন ধরণের বক্তব্য রেখেছেন। আমরা বাস্তবতা অনুসরণ করে চলছি। সারা বিশ্বে ডব্লিউএইচও স্বাস্থ্যবিধি স্মরণ করিয়ে দিচ্ছে সেটা যথাযথভাবে অনুসরণ করছি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, শাজাহান খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, এস এম কামাল হোসেন, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, উপ দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান, সদস্য খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন, পারভীন জামান কল্পনাসহ অনেকে।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত