শুক্রবার, ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

খালেদা জিয়া মুক্ত না হলে নারী অধিকারও ফিরবে না : ফখরুল

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

দেশে গণতন্ত্র ফেরাতে না পারলে এবং খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা না গেলে নারী অধিকার ফিরে পাওয়া যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ রোববার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল আয়োজিত শোভাযাত্রার উদ্বোধনকালে তিনি এমন মন্তব্য করেছেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। তাকে মুক্ত করতে না পারলে গণতন্ত্র মুক্তি পাবে না। আর নারী শিক্ষার জন্য সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য যে কাজটি তিনি করেছেন সেটি হলো নারীদের জন্য অবৈতনিক শিক্ষা ব্যবস্থার প্রবর্তন।’

নারী দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক নারী দিবস অত্যন্ত উল্লেখযোগ্য এবং তাৎপর্যপূর্ণ দিন হওয়া উচিত। মহিলাদের যে অধিকার, তাদের যে উন্নয়ন, তাদের যে ক্ষমতায়ন, এই বিষয়গুলোর জন্য দীর্ঘকাল ধরে আন্দোলন হয়েছে। একদিনে এটি আসেনি। আজকের সারা বিশ্বের মহিলাদের যতটুকু প্রাপ্তি এসেছে এটা কিন্তু আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এসেছে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে বাংলাদেশে যখন আপনারা আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন করছেন তখনই দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে আবদ্ধ করে রাখা হয়েছে।’

নারী উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নে খালেদা জিয়ার নেওয়া পদক্ষেপের প্রশংসা করে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া। নারীর ক্ষমতায়ন ও নারী উন্নয়নের তার ভূমিকা দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে। সেই নেতাকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে সরকার কারাগারে আবদ্ধ করে রেখেছে। আমি নারী নেত্রীদের বলব, আপনাদের আজ শপথ নিতে হবে, শুধুমাত্র নারীদের অধিকারই নয়; গণতন্ত্র ফেরাতে ও গণতন্ত্রের মাতা খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে সংগ্রাম করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা দেখেছি, আমাদের দেশের মহিলারা অত্যন্ত নিষ্ঠাবান। পরিবার ও সমাজের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যান তারা। তাদের কাছে বার্তা পৌঁছে দিতে হবে, গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে, গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে আনতে না পারলে নারী অধিকারও থাকবে না।’

শোভাযাত্রায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান,সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী,জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক সুলতান আহমেদ, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খান এবং বিএনপির মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নূরে আরা সাফা, রাশেদা বেগম হীরা,জেবা খানসহ সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

মহিলা দলের শোভাযাত্রাকে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সামনে কঠোর নিরাপত্তা বলয় গড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থার সদস্যদেরও মোতায়েন করে হয়েছিল।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত