রবিবার, ২৪শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

বিএনপির সাংগঠনিক শক্তি নেই, তাই এজেন্ট দিতে পারেনি: তাপস

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

বিএনপি প্রার্থীরা গণসংযোগের সময় নালিশ নিয়ে ব্যস্ত ছিল, এখন অভিযোগ নিয়ে ব্যস্ত আছে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস। তিনি বলেছেন, ‘বিএনপির অভিযোগ সম্পূর্ণ অমূলক। বিএনপির সাংগঠনিক কাঠামো নেই, শক্তি নেই, তাই এজেন্ট দিতে পারেনি। না পেরে আমাদের দিকে নানা অভিযোগ করছে।’

আজ শনিবার সকালে ধানমন্ডির কামরুন্নেসা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ভোট দেওয়ার পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন শেখ ফজলে নূর। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন মানেই প্রতিযোগিতা, জয় পরাজয় হতেই পারে। ফলাফল যাই হোক, মেনে নেব। তবে জয়ের ব্যাপারে আমি খুবই আশাবাদী, সবাই নৌকায় ভোট দিয়ে আমাকে জয়যুক্ত করবে। কারণ, আমরা যে পাঁচ রূপরেখা তুলে ধরেছি, ঢাকাবাসী তা সাদরে গ্রহণ করেছে।’

ভোটের পরিবেশ নিয়ে ফজলে নূর তাপস বলেন, এখন পর্যন্ত ভোট সুষ্ঠু হচ্ছে। কোথাও কোনো অভিযোগ পাইনি।

দুই দিন আগে ১৭০টি কেন্দ্র দখলের ষড়যন্ত্রের অভিযোগ করেছিলেন, এর কোনো আপডেট আছে কী না জানতে চাইলে এই মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘খোঁজ রাখা হচ্ছে। নিজে এসব কেন্দ্র পরিদর্শনে যাব।’

সিটি নির্বাচনে কূটনীতিকদের কাছে বিএনপির অভিযোগ প্রসঙ্গে তাপস বলেন, ‘তারা তো নালিশ নিয়ে ব্যস্ত আছে। তারা গণসংযোগ বাদ দিয়ে অভিযোগ করে বেড়াচ্ছে। আমরা গণসংযোগ নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম।’

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন-ই‌ভিএমে ভোট দেয়ার প্র‌তি‌ক্রিয়া জান‌তে চাই‌লে তাপস ব‌লেন, ‌‘ই‌ভিএম খুব সহজ পদ্ধতি। আমি এই প্রথম ভোট দিলাম। প্রতীকগুলো দেয়া আছে, নামগুলো দেয়া আছে। আ‌মি আমার প্রতীক নৌকা মার্কায় আমার না‌মের পা‌শে বোতামটা চাপ দিলাম। তারপর আবার নি‌শ্চিত করার জন্য সবুজ বোতাম চাপ দিলাম। এরপর উ‌ঠে আস‌লো যে নৌকা প্রতী‌কে ভোটটা হ‌য়ে‌ছে। এরপর আ‌মি আমা‌দের ধানম‌ন্ডি ১৫ ওয়া‌র্ডের আওয়ামী লীগ ম‌নোনীত কাউ‌ন্সিলর ঘু‌ড়ি মার্কায় র‌ফিকুল ইসলাম বাবলা‌কে ভোট দিলাম। তখন উ‌ঠে আস‌লো যে ভোটটা হ‌য়ে‌ছে। তৃতীয়ত আমা‌দের ম‌হিলা কাউ‌ন্সিলর শি‌রি‌ন গাফফার‌কে আনারস মার্কায় একইভা‌বে ভোট দিলাম। ভা‌লো লাগ‌লো। সহজ পদ্ধ‌তি, আধু‌নিক পদ্ধ‌তি ‘
তি‌নি আরও ব‌লেন, ‘ই‌ভিএ‌মে আ‌মি নিশ্চিত হতে পেরেছি যে আমার ভোট‌টি সঠিকভাবে প্রয়োগ হয়েছে। আমি গণসংযোগে দেখেছি ইভিএমে ভোট দেয়ার বিষযয়ে ঢাকাবাসীর কখনো কোনো শঙ্কা ছিল না । আমি মনে করি ঢাকাবাসী এটা সাদরে গ্রহণ করেছে। ভোট দেয়ার মাধ্যমে তারা তাদের সেবক নির্বাচিত করবে। ভোট দিয়ে তারা উন্নত ঢাকা করার পক্ষে রায় দেবে।’

Print Friendly, PDF & Email

মতামত