সোমবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ বিএনপির রাজনৈতিক কৌশল: তাপস

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

নির্বাচনী প্রচারে আচরণবিধি লঙ্ঘনের কোনো নজির দেখছেন না ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে (ডিএসসিসি) আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস। তিনি বলেছেন, আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ করা বিএনপির রাজনৈতিক কৌশল। নির্বাচনী প্রচার যত দিন চলবে, তত দিন এটা হতে থাকবে। নিছক অভিযোগ করতে হয় বলেই তারা করছে।

বিএনপির পক্ষ থেকে বারবার আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তোলার বিষয়ে আজ সোমবার নির্বাচনী প্রচার শুরুর সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এমন মন্তব্য করেন শেখ ফজলে নূর। খিলগাঁও রেলগেটের পাশে জোড় পুকুর মাঠ থেকে একাদশ দিনের নির্বাচনী প্রচার শুরু করেন তিনি। এ সময় তিনি বলেন, ঢাকার উন্নয়নের জন্য নয়, নগরবাসীকে সেবা দিতে নয়, ঢাকাবাসীর কষ্ট লাঘবের জন্য নয়, উন্নত ও আধুনিক ঢাকা গড়তে নয়, বরং তারা বারবার বলছে এটি তাদের আন্দোলনের একটি অংশ। এই নির্বাচনকে তারা তাদের নেত্রীকে মুক্ত করার আন্দোলনের অংশ হিসেবে দেখছে। ঢাকাবাসী এটা গ্রহণ করবে না।

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে বিএনপির বিরোধিতা ও আন্দোলনের হুমকি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সাংবাদিকদের শেখ ফজলে নূর বলেন, ‘ঢাকার জনগণের মধ্যে এ ব্যাপারে কোনো শঙ্কা দেখিনি। আধুনিক প্রযুক্তি সবাই সাদরে গ্রহণ করেছে। একটি সুষ্ঠু, অংশগ্রহণমূলক ও প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচনের মাধ্যমে ঢাকাবাসী তাদের সেবক নির্বাচিত করবে।’

বেলা ১১টায় প্রচার শুরু করার কথা থাকলেও ঢাকা দক্ষিণে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী শেখ ফজলে নূর আসেন বেলা দুইটার কিছু আগে। সকাল থেকেই জোড় পুকুর মাঠে জড়ো হন নেতা-কর্মীরা। স্লোগানে স্লোগানে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে অভ্যর্থনা জানান নেতা-কর্মীরা। তাঁদের উদ্দেশে শেখ ফজলে নূর বলেন, ‘আমাদের ঘোষিত উন্নয়নের রূপরেখা ঢাকাবাসী সাদরে গ্রহণ করেছে। এভাবে উন্নয়নের রূপরেখা আর কোনো প্রার্থী এই নির্বাচনে দেয়নি, এর আগেও কেউ দেয়নি।’ দু-এক দিনের মধ্যেই বিস্তারিত ইশতেহার প্রকাশ করা হবে বলে জানান তিনি।

উন্নত ঢাকা গড়তে পাঁচ দফা প্রতিশ্রুতি দিয়ে শেখ ফজলে নূর বলেন, ‘ঢাকাবাসী তাদের প্রাণের ঢাকাকে ভালোবাসে, তারা উন্নত ঢাকা চায়। আগামী ১ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে ঢাকাবাসী একটি নব সূচনা গড়ার লক্ষ্যে এই সুযোগ নেবে। উন্নত ঢাকা গড়ার লক্ষ্যে তারা সকলেই ভোটকেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে। তাদের সেবক নির্বাচিত করে আমাদের সেবা করার সুযোগ দেবে।’

হকারমুক্ত ঢাকার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, হকাররা মধ্যস্বত্বভোগীর মাধ্যমে শোষিত হয়। তাই তাদের জন্য কর্মসংস্থান ও পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করে হকারমুক্ত ঢাকা গড়ার পরিকল্পনা নেওয়া হবে।

বায়ু দূষণ নিয়ে আপনাদের কোনো পরিকল্পনা আছে কি না জানতে চাইলে এই মেয়র প্রার্থী আরও বলেন, ‘আমরা যে রূপরেখা দিয়েছি। সেখানে আমরা আমাদের ঢাকাকে সবুজ, শ্যামল ঢাকা হিসেবে ঢাকাকে প্রতিষ্ঠা করতে চাই। আমরা যে আজকে বায়ু দূষণে আক্রান্ত। এই বায়ু দূষণ যাতে রোধ করা যায়। তাই সুন্দর ঢাকা গড়ার মাধ্যমে বায়ু দূষণ থেকে আমরা মুক্ত হতে পারব।’

এসময় নির্বাচনি প্রচারণায় তাপসের সঙ্গে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। অপরদিকে সকাল থেকেই খিলগাঁও এলাকায় জড়ো হতে থাকে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। তাদের বিভিন্ন উন্নয়নের স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত হতে থাকে খিলগাঁও এলাকা।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত