শনিবার, ২৩শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

নির্বাচনের তারিখের সমস্যা ইসির অযোগ্যতায়: ফখরুল

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

বিভিন্ন মহলে সমালোচনার মুখে ঢাকা সিটির নির্বাচনের তারিখ পিছিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ প্রসঙ্গে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, নির্বাচন কমিশনের অযোগ্যতার কারণেই এ সমস্যার সৃষ্টি হয়েছিল।

আজ রোববার সকালে রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৮৪তম জন্মবার্ষিকীতে শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল এবং ইশরাক হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে জিয়ার সমাধিতে মির্জা ফখরুল শ্রদ্ধা জানান।

গতকাল শনিবার নির্বাচন কমিশন ভোটের নতুন তারিখ ঘোষণা করে। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ভোট গ্রহণ হবে। এর আগে ৩০ জানুয়ারি নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। একই দিনে সরস্বতী পূজা। তাই তারিখ পরিবর্তনের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অনশন শুরু করে এবং মেয়র প্রার্থীসহ বিভিন্ন মহল ৩০ তারিখ নির্বাচন না করার দাবি জানায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, এই নির্বাচন কমিশন যে অযোগ্য, ব্যর্থ, একটা নির্বাচন পরিচালনার যোগ্যতা রাখে না তা প্রমাণ হলো। এমন একটা দিনে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত হলো যেদিন সরস্বতী পূজা। পূজার জায়গাগুলোতে অনেক কেন্দ্র ছিল। কমিশনের অযোগ্যতার কারণেই এসব সমস্যার সৃষ্টি হয়েছিল।

ইভিএমকে ত্রুটিপূর্ণ বলে বিএনপি মহাসচিব বলেন, এটা নির্বাচন ব্যবস্থাকে পুরোপুরি ধ্বংস করার অপকৌশল। জনগণের রায় ইভিএমে আসবে না। তিনি আরও বলেন, ঢাকা সিটি নির্বাচনে একটি দলই প্রাধান্য পাচ্ছে। নির্বাচন কমিশনকে অযোগ্য উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, কমিশন কোনো ব্যবস্থা নিতে সক্ষম নয়, তাদের সেই যোগ্যতা নেই।

ক্ষমতাসীনদের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, ক্ষমতায় আসার পর গণতন্ত্রকে সংকুচিত করে ফেলেছে। রাজনৈতিক দলগুলোর স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে।

জিয়াউর রহমান প্রসঙ্গে বলেন, জাতিকে নেতৃত্ব দিয়েছেন, অতি অল্প সময়ে মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করেছেন। বহুদলীয় গণতন্ত্র ও মুক্ত অর্থনীতিতে তাঁর ভূমিকা ছিল। জিয়ার জন্মদিনে খালেদা জিয়া কারাগারে এবং তার সন্তান নির্বাসিত উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের প্রতিহিংসার কারণেই এটা হয়েছে। তাঁরা দেশকে অগণতান্ত্রিক স্বৈরাচারী রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

জিয়ার সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে এসে গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার শপথ নিয়েছেন বলে জানান বিএনপি মহাসচিব।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত