শনিবার, ২৮শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

মন্ত্রী, সাংসদেরা আচরণবিধি লঙ্ঘন করবে না: কাদের

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের পক্ষে প্রচার চালাতে আচরণবিধি লঙ্ঘন করা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, নির্বাচন পরিচালনার জন্য দল কমিটি গঠন করতেই পারে। তাঁরা তো প্রচার প্রচারণার জন্য বাইরে যাচ্ছেন না। আমাদের কোনো মন্ত্রী-এমপি আচরণ-বিধি লঙ্ঘন করবে না।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু এবং তোফায়েল আহমেদকে দলের মনোনীত দুই মেয়র প্রার্থীর সমন্বয়কের দায়িত্ব দেওয়া নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে সাংবাদিকদের এমন কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। আজ রোববার সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে নতুন গঠিত আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর প্রথম বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

সরকারি দলের সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচনে প্রচার প্রচারণায় বিএনপি প্রার্থীদের মোকাবিলায় তাদের ক্লিন ইমেজের দুই মেয়র প্রার্থী যথেষ্ট। সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করেনি। আচরণবিধি মেনেই প্রচারণা চালাবে। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ বিষয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে কী উদ্দেশ্য হাসিল করতে চান? এই প্রশ্ন তোলেন ওবায়দুল কাদের।

ওবায়দুল কাদের জানান, সিটি নির্বাচন নিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া নির্দেশনাগুলো বৈঠকে নেতাদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া জাতীয় সম্মেলনের আগে সারা দেশে ২৯টি জেলা কমিটির সম্মেলন হয়েছে। বাকি জেলাগুলো আগামী ৬ মার্চের মধ্যে সমাপ্ত করার জন্য দলীয় সভাপতি নির্দেশনা দিয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর জন্য আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি আগামী ১৮ জানুয়ারি টুঙ্গিপাড়া যাবেন। সেখানে একটি যৌথসভা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিবার নতুন কমিটি গঠন হলে টুঙ্গি পাড়ায় যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়। দেশের বিভিন্ন এলাকায় শীতার্ত মানুষের মধ্য এ পর্যন্ত ৪৫ লাখ শীতবস্ত্র এবং তিন কোটি টাকা বিতরণ করা হয়েছে।

সংসদ সদস্য আমির হোসেন আমু ও তোফায়েল আহমেদ দুই মেয়র প্রার্থীর সমন্বয়ক হওয়া সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, দল নির্বাচন পরিচালনার জন্য কমিটি গঠন করতেই পারে। তারা তো প্রচার-প্রচারণার জন্য বাইরে যাচ্ছে না। আমাদের কোনো এমপি-মন্ত্রী আচরণ লঙ্ঘন করবে না।

মুজিববর্ষ পালন প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের জবাবে কাদের বলেন, মুজিববর্ষ পালন করে মানুষের মন জয় করা যাবে না, তাহলে কি ভুয়া জন্মদিনে কেক কেটে মানুষের মন জয় করা যাবে?

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ ও আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বি এম মোজাম্মেল হক, আফজাল হোসেন, এস এম কামাল হোসেন ও সাখাওয়াত হোসেন শফিক, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, দপ্তর সম্পাদক বড়ুয়া, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সেলিম মাহমুদ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি, আইন বিষয়ক সম্পাদক নজিবুল্লাহ হিরু, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত