শনিবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

প্রচারের জন্য রাস্তায় যেন যানজট না হয়: তাপস

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের মোনাজাতের কারণে নির্ধারিত সময় থেকে একটু দেরি করে তৃতীয় দিনের নির্বাচনী প্রচার শুরু করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস। প্রচারের শুরুতেই আজ রোববার দুপুরে শান্তিনগর বাজারের সামনে এক পথসভায় নেতা-কর্মীদের তিনি বলেন, ‘সুশৃঙ্খলভাবে প্রচার চালাবেন। প্রচারের জন্য রাস্তায় যেন যানজট তৈরি না হয়।’

পথসভায় বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শেখ ফজলে নূর বলেন, ‘সুন্দর সম্প্রীতির রাজনীতি ঢাকাবাসীকে উপহার দিতে চাই। আমি পরিচ্ছন্ন রাজনীতি চাই।’ সবাইকে পরিচ্ছন্ন রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

আজ সকাল সাড়ে ১০টায় প্রচার শুরুর কথা ছিল তাপসের। নেতা-কর্মীরা ভিড় করেন তার আগে থেকেই। দুপুর ১২টার দিকে আসেন তাপস। বাসযোগ্য ঢাকা গড়ায় নিজের পাঁচ পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ঐতিহ্যের ঢাকা, সুন্দর ঢাকা, সচল ঢাকা, উন্নত ঢাকা ও সুশাসিত ঢাকা গড়ে তোলা হবে। শহরে মাদকসহ অন্যান্য অপরাধমূলক সামাজিক ব্যাধিগুলো দূর করা হবে। এলাকাভিত্তিক সমস্যা সমাধান করা হবে। রাস্তা-ঘাট পুনর্বিন্যাস করে জনগণের ভোগান্তি কমানো হবে।

ফজলে নূর তাপস বলেন, ‘আমরা যখন সম্প্রীতির ঢাকা গড়ার প্রত্যয়ে প্রচারণা চালাচ্ছি তখন আমার প্রতিদ্বন্দ্বী মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেনের নেতাকর্মীরা আমাদের গোপীবাগের ওয়ার্ড কাউন্সিলরের নেতাকর্মীদের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে। এটি দুঃখজনক। অথচ গতকাল আমি আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ইশরাক হোসেনের বাসায় ভোট চাইতে গিয়েছিলাম। আমরা ঢাকায় সুন্দর ও সম্প্রীতির রাজনীতি উপহার দিতে চাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘আগামী ৩০ তারিখে আপনারা সিদ্ধান্ত নেবেন এ নগরের সেবক কে হবেন? কারণ ঢাকার যে পরিবর্তন নগরবাসী আশা করেছিল তেমনটি হয়নি। তাই এই অবহেলিত ঢাকার অভিভাবকত্ব নিয়ে কাজ করতে চাই। আগে যারা দায়িত্ব পালন করেছিলেন তারা কেউ অভিভাবকত্ব নিয়ে কাজ করেনি। অব্যবস্থাপনা অনেক হয়েছে, আর না। এখন সময় এসেছে দায়িত্ব পালনের মাধ্যেমে একটি বসবাসযোগ্য নগর গড়ে তোলার।’

তাপস বলেন, ‘নির্বাচিত হলে যেদিন থেকে দায়িত্ব গ্রহণ করবো সেদিন থেকেই কাজ শুরু করবো। ২৪ ঘণ্টা সিটি করপোরেশন নগরবাসীর জন্য খোলা থাকবে। শুধু মন্ত্রী-এমপি বা কাউন্সিলরদের জন্য নয়, ঢাকাবাসীর জন্য সিটি করপোরেশন সবসময় উন্মুক্ত থাকবে।’

এ সময় তার পরিকল্পনা কথা তুলে ধরে বলেন, ‘ঢাকায় দ্রুতগতি ও ধীরগতির গাড়ির জন্য পৃথক লেনের ব্যবস্থা করা হবে। পায়ে হাঁটার জন্য আলাদা এবং সাইকেল লেনও আলাদা করা জন্য পরিকল্পনা রয়েছে। শহরের প্রধান সমস্যা যানজট নিরসন করতে হবেই। আমরা নগরের কোথাও উন্মুক্ত স্থানে আবর্জনার স্তুপ দেখতে চায় না। সিটি করপোরেশনের কোনো ধরনের গাফিলতি বরদাশত করা হবে না। কাউন্সিলরদের নিয়ে আমরা দলগতভাবে একটি সুন্দর ও পরিবেশবান্ধব ঢাকা উপহার দেব।’

এ সময় শেখ ফজলে নূর তাপসের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, যুবলীগের সভাপতিমণ্ডলীর সাবেক সদস্য মাহবুবুর রহমান ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতারা।

পথসভা শেষে ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী হেঁটে হেঁটে সাধারণ মানুষের হাতে নিজের প্রচারপত্র বিলি করেন। আজ সারা দিন শান্তিনগর, মালিবাগ, বেইলি রোড, সিদ্ধেশ্বরী, কাকরাইল ও মতিঝিল এলাকায় তাঁর প্রচার চালানোর কথা আছে।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত