শুক্রবার, ১লা অক্টোবর, ২০২০ ইং

নতুন বছরে মন্ত্রিসভা পুনর্বিন্যাস হতে পারে: কাদের

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় দফার সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগামী মঙ্গলবার দলের পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করা হতে পারে। এ ছাড়া নতুন বছরে মন্ত্রিসভা পুনর্বিন্যাস হতে পারে।

আজ রোববার সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আগামী মঙ্গলবার দলের সভাপতিমণ্ডলীর সভা ডাকা হয়েছে। সেখানে আলাপ-আলোচনার পর দলের পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

ক্ষমতাসীন দলটি নতুন কেন্দ্রীয় কমিটি গঠনের পর মন্ত্রিসভায় কোনো পরিবর্তন আসবে কি না, সে সম্পর্কে ওবায়দুল কাদেরের কাছে প্রশ্ন রাখেন এক সাংবাদিক। জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, মন্ত্রিসভা পুনর্বিন্যাস একটি রুটিন ওয়ার্ক। নতুন বছরে এটা হতে পারে।

আওয়ামী লীগের নতুন কমিটিকে স্বাগত জানিয়েছে বিএনপি। এই বিষয়টিকে গণতন্ত্র চর্চার অংশ হিসেবে দেখছেন ওবায়দুল কাদের। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অন্য বিরোধী দলের নেতারা সম্মেলনে উপস্থিত হয়েছিলেন। বিএনপি এলে ভালো হতো। শুভ খবর বয়ে আনত।

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে যাঁরা

সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক
আওয়ামী লীগের ২১ তম জাতীয় কাউন্সিলে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ ৪২ জনের নাম গতকাল শনিবার ঘোষণা করা হয়। ৮১ সদস্যের কেন্দ্রীয় কমিটির বাকি ৩৯ জনের নাম পরে ঘোষণা করা হবে বলে জানানো হয়। টানা নবমবারের মতো দলের সভাপতি হয়েছেন শেখ হাসিনা। দ্বিতীয়বারের মতো সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন ওবায়দুল কাদের।

সভাপতিমণ্ডলী
গঠনতন্ত্র অনুসারে আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ১৯ জন। বাকি ১৭ জন হলেন সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মোহাম্মদ নাসিম, কাজী জাফরউল্যাহ, সাহারা খাতুন, নুরুল ইসলাম নাহিদ, মোশাররফ হোসেন, পীযূষ কান্তি ভট্টাচার্য, মো. আব্দুর রাজ্জাক, মুহাম্মদ ফারুক খান, রমেশ চন্দ্র সেন, আবদুল মান্নান খান, আবদুল মতিন খসরু, শাজাহান খান, জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আবদুর রহমান।

উপদেষ্টা পরিষদ
গঠনতন্ত্র সংশোধন করে ৪১ থেকে ৫১ সদস্যের উপদেষ্টা পরিষদ করা হয়েছে। ৪০ জনের নাম ঘোষণা করেন দলের সভাপতি। তাঁরা হলেন এস এ মালেক, আবুল মাল আবদুল মুহিত, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, মো. রহমত আলী, এইচ টি ইমাম, মশিউর রহমান, আলাউদ্দিন আহমেদ, ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, শফিক আহমেদ, সৈয়দ আবু নসর, সতীশ চন্দ্র রায়, আবদুল খালেক, রুহুল হক, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, কাজী আকরাম উদ্দীন, সৈয়দ রেজাউর রহমান, অনুপম সেন, হামিদা বানু, মো. হোসেন মনসুর, সুলতানা শফি, এ এফ এম ফখরুল ইসলাম মুন্সী, মোহাম্মদ জমির, গোলাম মওলা নকশাবন্দি, মির্জা এম এ জলিল, প্রণব কুমার বড়ুয়া, আবদুল হাফিজ মল্লিক, সাইদুর রহমান খান, গওহর রিজভী, রাশিদুল আলম, ইয়াফেস ওসমান, কাজী সিরাজুল ইসলাম, মকবুল হোসেন, মোজাফফর হোসেন পল্টু, আবদুল বাসেত মজুমদার, মুকুল বোস, সালমান এফ রহমান, ইনাম আহমদ চৌধুরী, আতাউর রহমান ও জয়নাল হাজারী। সভাপতি পরে বাকিদের নাম যুক্ত করবেন। এর জন্য তিনি কাউন্সিলরদের অনুমতি নিয়ে রেখেছেন।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক
যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের পদ চারটি। সবার নাম ঘোষণা করা হয়েছে। তাঁরা হলেন মাহবুব উল আলম হানিফ, দীপু মনি, হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম।

সাংগঠনিক সম্পাদক
সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ আটটি। পাঁচজনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। তাঁরা হলেন আহমদ হোসেন, বি এম মোজাম্মেল হক, আবু সাঈদ আল মাহমুদ, এস এম কামাল হোসেন ও মির্জা আজম।

সম্পাদক হলেন যাঁরা
দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান, আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাম্মী আক্তার, আইনবিষয়ক সম্পাদক নজিবুল্লাহ, কৃষি ও সমবায়বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণবিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, মহিলাবিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ, মুক্তিযোদ্ধাবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হারুন অর রশীদ, শিক্ষা ও মানবসম্পদবিষয়ক সম্পাদক শামসুন নাহার, সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষয়ক সম্পাদক রোকেয়া সুলতানা।

সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ড
শেখ হাসিনা, সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, কাজী জাফরউল্যাহ, ওবায়দুল কাদের ও মো. রশিদুল আলম।

স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড
শেখ হাসিনা, সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ, কাজী জাফরউল্যাহ, মোহাম্মদ নাসিম, মো. আব্দুর রাজ্জাক, ফারুক খান, ওবায়দুল কাদের, মো. রশিদুল আলম, মাহবুব উল আলম হানিফ, দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, আবদুস সোবহান।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত