রবিবার, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

বাংলাদেশের জন্ম চেতনার শেকড় থেকে আমরা এক চুলও বিচ্যুত হইনি : কাদের

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে কৌশলগত পরিবর্তন থাকতে পারে; কিন্তু আদর্শের প্রশ্নে, বাংলাদেশের জন্ম চেতনার শেকড় থেকে আমরা এক চুলও বিচ্যুত হইনি।

শনিবার (১৪ডিসেম্বর) বিকেলে রাজধানীর খামারবাড়িতে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। ‘তোমাদের যা বলার ছিল, বলছে তা আজ বাংলাদেশ’ শিরোনামে এই আলোচনা সভার আয়োজন করে আওয়ামী লীগ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের স্মরণ রাখতে হবে, এই দেশে যদি বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতার মঞ্চে না আসতেন, তাহলে কী হতো? তিনি যদি ক্ষমতায় না আসতেন তাহলে এদেশে কি যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হতো? এদেশে কি বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদের বিচার হতো? জেল হত্যার বিচার হতো?’

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যাই জাতিকে কলঙ্কমুক্ত ও পাপমুক্ত করেছেন উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন,‘আমাদের বারবার মনে করতে হবে, শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলেই স্বাধীনতার মূল্যবোধ বেঁচে আছে। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলে মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধ, স্বাধীনতার পুষ্পিত আদর্শ আজকে বেঁচে আছে। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলেই এই দেশে এখনও আশার আলো আছে, স্বপ্ন আছে। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলেই এই দেশের উজ্জ্বল সম্ভাবনা আছে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের অনেকেই মাঝে মাঝে ভুল বোঝেন। আমি স্পষ্টভাবে বলতে চাই, আমাদের রাজনীতিতে কৌশলগত পরিবর্তন থাকতে পারে। স্ট্রাটেজিক পরিবর্তন থাকতে পারে। কিন্তু আমরা আদর্শের প্রশ্নে, বাংলাদেশের জন্ম চেতনা, বাংলাদেশ রাষ্ট্রের শেকড় থেকে আমরা এক চুলও বিচ্যুত হইনি।’

বুদ্ধীজীবী দিবসে দলীয় নেতাকর্মীদের শপথ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক শক্তি, অশুভ শক্তি একাত্তরের বর্বর হত্যাকাণ্ড সংঘটিত করেছিল। তাদের দোসরদের প্রেতাত্মারা আজও বাংলাদেশে আছে। তাদের সেই অনুসারীরা পাকিস্তানী চেতনার মানসিকতায় আজও বাংলার মাটিতে বেঁচে আছে। এরা ষড়যন্ত্র করছে। এদের পৃষ্ঠপোষকতা করছে সাম্প্রদায়িকতার পৃষ্ঠপোষক। জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক বিএনপি আজকে এই অপশক্তিকে উসকানি দিচ্ছে, ষড়যন্ত্র করছে, চক্রান্ত করছে। তাই আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। সজাগ থাকতে হবে।’

তাই বাঙালি জাতিকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে পরাজিত করার আহ্বান জানান তিনি।

সভার শুরুতে শোকাবহ ১৫ আগস্টে নিহত সকল শহীদ, জাতীয় চার নেতা, ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবীসহ মুক্তিযুদ্ধে নিহত সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় সূচনা বক্তব্য দেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। শহীদ বুদ্ধিজীবী সন্তান হিসেবে অনুভূতি ব্যক্ত করেন শহীদ বুদ্ধিজীবী আলতাফ মাহমুদের কন্যা শাওন মাহমুদ। এছাড়াও দলের নেতাদের মধ্যে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর ও দক্ষিণের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, আবু আহম্মেদ মান্নাফী বক্তব্য দেন। যৌথভাবে সভা পরিচালনা করেন দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এবং উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত