বৃহস্পতিবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

১৬ ডিসেম্বর খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে পারবেন স্বজনরা

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

আগামী ১৬ ডিসেম্বর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে যাবেন পরিবারের স্বজনরা। বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেসউইং কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকেল ৩ টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার স্বজনদের দেখা করতে যাওয়ার কথা থাকলেও, পরে তা বাতিল হয়।

এ বিষয়ে, শামসুদ্দিন দিদার বলেন, ‘কারা কর্তৃপক্ষই প্রথমে আজ (১৪ ডিসেম্বর) দেখা করার অনুমতি দিয়েছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে তা বাতিল করা হয়। পরে ১৬ ডিসেম্বর নতুন করে বিএনপি চেয়ারপাসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে স্বজনদের দেখা করার অনুমতি দেয় কারা কর্তৃপক্ষ।’

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, এর আগে কারা কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে শনিবার বিকেল ৩ টায় খালেদা জিয়ার বোন সেলিমা ইসলাম, বোনের স্বামী অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার, ভাবি কানিজ ফাতেমা, ভাতিজা অভিক ইস্কান্দার, ভাগ্নি শাহিনা জামান খান বিএসএমএমইউতে যেতে চেয়েছিলেন।

কিন্তু দুপুর আড়াইটার দিকে পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে শামসুদ্দিন দিদার জানান- খালেদা জিয়ার স্বজনরা আজ (শনিবার) দেখা করতে যাচ্ছেন না।

সর্বশেষ গত ১৩ নভেম্বর খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছিলেন তার স্বজনরা। এরপর ৩০ দিন পেরিয়ে গেলেও দেখা করার অনুমতি মিলছিল না। ফলে চরম উৎকণ্ঠায় ছিল খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় ১৭ বছরের সাজা নিয়ে গত বছর ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে রয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। শারীরিক অবস্থার অবনতির কারণে চলতি বছরের চার এপ্রিল তাকে ভর্তি করা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজি মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে।

কারাবিধি অনুযায়ী ১৫ দিন পর পর বন্দির সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পান তার স্বজনরা। যেহেতু গত ১৩ নভেম্বর খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন তার স্বজনরা, সেই হিসেবে ২৮ নভেম্বরের মধ্যে আরেকবার দেখা করার অনুমতি পাওয়ার কথা ছিল।

গত ২৪ নভেম্বর খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার কারা মহাপরিদর্শক ও জেল সুপার বরাবর চিঠি লেখেন। সেখানে তিনি লেখেন-‘সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বর্তমানে পিজি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। সর্বশেষ গত ১৩ নভেম্বর কয়েকজন আত্মীয় তার সঙ্গে দেখা করেন। নিম্নবর্ণিত আত্মীয়-স্বজনকে জরুরি ভিত্তিতে পুনরায় দেখা করার অনুমতি প্রদানের জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি।’

চিঠিতে খালেদা জিয়ার বোন সেলিমা ইসলাম, বোনের স্বামী অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার, ভাবি কানিজ ফাতেমা, ভাতিজা অভিক ইস্কান্দার, ভাগ্নি শাহিনা জামান খানের নাম উল্লেখ করা হয়— যারা খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে আগ্রহী।

চিঠি দেওয়ার ২০ দিন পর গতকাল কারা কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে দেখা করার অনুমতি পায় পরিবারের সদস্যরা।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত