বুধবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

‘৩০ বছর ধরেই আর্থ্রাইটিস, ডায়াবেটিকস ও হাইপার টেনশনে ভুগছেন’

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

গত ৩০ বছর ধরে বিএনপি চেয়ারপারসন আর্থ্রাইটিস, ২০ বছর ধরে ডায়াবেটিকস ও ১০ বছর ধরে হাইপার টেনশনে ভুগছেন। এছাড়া, হাঁটু স্থানান্তর সম্ভব নয় বলে আদালতকে জানিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) আপিল বিভাগে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন শুনানিতে এসব বলেন তিনি।

আদালতকে তিনি জানান, তার হাঁটুও রিপ্লেসমেনট পসিবল না। হাঁটাচলায় রেস্ট্রিকশন রয়েছে। এডভান্স থেরাপি দরকার, তার জয়েন্ট ক্ষয় আছে।

নিউমারোলজিস্টের এক ডাক্তার হিরন মিয়া সরকারের মেডিকেলের রিপোর্ট থেকে অ্যাটর্নি আরো জানান, খালেদা জিয়ার আটলান্টিস দিনকে দিন অবনতি হয়েছে। ইনজেকশন হিসেবে একটা বায়োলজিক্যাল ট্রিটমেন্ট দেওয়া যায়। বাংলাদেশে এ ধরনের রোগের এভেইলেবল চিকিৎসা আছে। কোনো কোনো হাসপাতালে চিকিৎসা ব্যবস্থার সব ধরনের সুবিধা আছে। অ্যাপোলো হাসপাতালে নি (হাঁটু) রি-রিপ্লেসমেন্ট করা যায়। একজন জাজ করেছেন।

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ইবনে সিনা থেকে খালেদার রক্ত পরীক্ষা করা হয়েছে। রিপোর্ট দেখে তাকে ভ্যাকসিন দেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। তিনি ভ্যাকসিন নিতে রাজি হচ্ছেন না।

অ্যাটর্নি জেনারেল জানান, ‘সরকারের সর্বোচ্চ পদে থেকে তিনি যে আবেদন করেছেন তা বিবেচনা করেই হাইকোর্ট জামিন দেয়নি। আশা করি আপিল বিভাগও তা বহাল রাখবেন।’

Print Friendly, PDF & Email

মতামত