বুধবার, ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

প্রধানমন্ত্রী স্পেন থেকে দেশে ফিরেছেন

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

জাতিসংঘ জলবায়ু পরিবর্তন সম্মেলনে (কপ-২৫) অংশ নিয়ে তিন দিনের সরকারি সফর শেষে স্পেন থেকে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর সফরসঙ্গীদের নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি বিশেষ বিমান বাংলাদেশ সময় গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা ৫০ মিনিটে ঢাকায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। এর আগে গতকাল স্পেনের স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে নয়টায় বিমানটি মাদ্রিদ টরিজন বিমানবন্দর ত্যাগ করে। বিশ্ব পর্যটন সংস্থায় বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান।

কপ-২৫ নামে পরিচিত ওই জাতিসংঘ জলবায়ু পরিবর্তন সম্মেলন স্পেনের সার্বিক সহায়তায় চিলির সভাপতিত্বে ২ থেকে ১৩ ডিসেম্বর মাদ্রিদে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সম্মেলনে অংশ নিতে প্রধানমন্ত্রী গত রোববার বিকেলে মাদ্রিদে পৌঁছান। গত সোমবার সকালে তিনি স্পেনের বৃহত্তম প্রদর্শনী কমপ্লেক্স ও ইউরোপের গুরুত্বপূর্ণ ভেন্যু ফারিয়া দা মাদ্রিদে সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন। পরে নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অংশ নেন। এরপর ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চার্লস মিশেল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।

প্রধানমন্ত্রী ‘ন্যাশনাল প্ল্যানস টু ইনক্রিস অ্যাম্বিশন বাই ২০২০’ শীর্ষক একটি সাধারণ গোলটেবিল বৈঠক ও ফটোসেশনে যোগ দেন। কপ-২৫ সম্মেলনে অংশ নেওয়া রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানদের সম্মানে স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেড্রো সানচেজের দেওয়া ভোজসভায় অংশ নেন তিনি। পরে সরকার ও সিভিল সোসাইটির মধ্যে ‘এনহেন্সিং অ্যাকশন টুগেদার’ শীর্ষক একটি সংলাপে যোগ দেন।

গত সোমবার সন্ধ্যায় রাজপ্রাসাদে স্পেনের রাজা ও রানি আয়োজিত সংবর্ধনায় যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী।

ওই দিন সকালে শুরু হওয়া জলবায়ু সম্মেলনের এক ফাঁকে প্রধানমন্ত্রী ডাচ প্রধানমন্ত্রী ও ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে পৃথক বৈঠকে ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গাকে মিয়ানমার যাতে ফেরত নেয়, সে লক্ষ্যে দেশটির ওপর চাপ বজায় রাখতে বিশ্বসম্প্রদায়ের প্রতি আবারও আহ্বান জানান। ডাচ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মিয়ানমার আমাদের বন্ধুপ্রতিম প্রতিবেশী রাষ্ট্র। দেশটি সব সময় বলছে, তারা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেবে। তারা সমস্যাটি তৈরি করেছে। এর সমাধানও তাদের কাছে। তারা তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নেবে না, এ কথা কখনোই বলেনি। কিন্তু তাদের আন্তরিকতার ঘাটতি রয়েছে। অনুগ্রহ করে এ বিষয়ে আমাদের সহায়তা করুন।’

এর আগে গত রোববার সন্ধ্যায় মাদ্রিদের হোটেল ভিলা মাগনায় তাঁর সম্মানে দেশটিতে বাংলাদেশ দূতাবাস আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত