বৃহস্পতিবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

নির্যাতনের যাঁতাকলে সবাই অসুস্থ হয়ে পড়ছে: ফখরুল

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

সরকারের নির্যাতনের যাঁতাকলে বিএনপির নেতারা একে একে সবাই অসুস্থ হয়ে পড়ছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

রোববার (০৩ নভেম্বর) সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক দোয়া মাহফিলে তিনি এ অভিযোগ করেন। কারাবন্দি খালেদা জিয়া এবং দলের ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার আশু রোগ মুক্তি কামনায় এ দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘আমাদের দলের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একজন নেতা, বাংলাদেশের রাজনীতিতে যার অবদান অবিস্মরণীয়, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকা গুরুতর অসুস্থ। এই মুহূর্তে তিনি নিউ ইয়র্কের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন ‘শুধু সাদেক হোসেন খোকা নন, এই মুহূর্তে বিএনপির অসংখ্য নেতা অসুস্থ। দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বীর উত্তম, শাহজাহান সিরাজসহ অনেকেই গুরুতর অসুস্থ। আমরা এমন এক নির্যাতনের যাঁতাকলে পড়েছি যে, একে একে সবাই অসুস্থ হয়ে পড়ছি।’

তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে অসুস্থ মানুষগুলোর জন্য দোয়া করা ছাড়া আমাদের করার কিছু নেই। আমরা নিজেরা তাদের জন্য দোয়া করব এবং দেশবাসীকে অনুরোধ করব, তারা যেন তাদের জন্য দোয়া করে।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আরও বলেন, ‘আমাদের নেত্রী, গণতন্ত্রের মা’— যিনি সারাজীবন গণতন্ত্রের জন্য, মানুষের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য, দেশের জন্য সংগ্রাম করেছেন তিনিও আজ সরকারের নির্যাতনের যাঁতাকলে মারাত্মক অসুস্থ।’

তিনি বলেন, ‘একটা মিথ্যা ও বানোয়াট মামলায় তাকে সাজা দেওয়া হয়েছে। তার ন্যায্য অধিকার ‘জামিন’ থেকে তাকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে আমরা কেউ সুস্থ থাকতে পারছি না। একে একে সবাই অসুস্থ হয়ে পড়ছি। দেশের মানুষও আজ সরকারের নির্যাতনে অসুস্থ হয়ে পড়ছে। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে, সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই সরকারের বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।’

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান, ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার অবস্থা সঙ্কটাপন্ন। তিনি নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটনের মেমোরিয়াল স্লোয়ান ক্যাটারিং ক্যান্সার সেন্টার হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। গত ১৮ অক্টোবর তাকে সেখানে ভর্তি করা হয়।

এদিকে পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, নিউ ইয়র্কের স্লোশেন ক্যাটারিং ক্যানসার সেন্টারে ভর্তি হওয়ার পর গত ২৭ অক্টোবর সাদেক হোসেন খোকার শ্বাসনালী থেকে টিউমার অপসারণ করা হয়েছে। তার অবস্থা সংকটাপন্ন। বাবার অবস্থার অবনতির খবর শুনে খোকার ছেলে ইশরাক হোসেন নিউ ইয়র্ক গিয়েছেন।

মাওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর নেতৃত্বাধীন ন্যাপের রাজনীতি থেকে বিএনপির রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হন দলটি গঠনের পরপরই। ঢাকা মহানগর বিএনপির সাবেক সভাপতি সাদেক হোসেন খোকা একজন দক্ষ ক্রীড়া সংগঠক হিসেবেও ক্রীড়াঙ্গনে ব্যাপক পরিচিত রয়েছে। ১৯৯১ ও ২০০১ সালে ঢাকার সূত্রাপুর-কোতোয়ালী আসন থেকে তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

সাদেক হোসেন খোকা অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত মেয়র এবং খালেদা জিয়ার মন্ত্রীসভার মৎস্য ও পশু সম্পদ-মন্ত্রী ছিলেন।

২০১৪ সালের ১৪ মে সাদেক হোসেন খোকা চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্র যান। সেখানে থাকা অবস্থায় তার বিরুদ্ধে দেশে কয়েকটি দুর্নীতি মামলা হয় এবং কয়েকটিতে সাজাও দেন আদালত।

দোয়া মাহফিলে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর (উত্তর) বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুন্সি বজলুল বাসিত আনঞ্জু, ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ ) বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, নির্বাহী সদস্য তাবিথ আউয়াল প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত