বুধবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

অস্ত্র-মাদকসহ ডিএসসিসি কাউন্সিলর মঞ্জু গ্রেফতার

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৩৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ময়নুল হক ওরফে মনজুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর টিকাটুলি এলাকায় অবস্থিত ডিএসসিসির ৩৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে ময়নুলকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব।

অভিযানে ময়নুলের কার্যালয় থেকে মদ, গাঁজা, ইয়াবা বড়ি, ফেনসিডিল, যৌন উত্তেজক সামগ্রী ও পিস্তল জব্দ করা হয়।

বেলা ১২টার দিকে রাজধানীর টিকাটুলি এলাকায় ৩৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ময়নুল হক মঞ্জুর কার্যালয়ে অভিযান শুরু করে র্যা ব। কাউন্সিলর ময়নুল হক মঞ্জুর বিরুদ্ধে একাধিক চাঁদাবাজির মামলা রয়েছে।

র্যা ব সদর দফতরে মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক মিজানুর রহমান জানান, নিজ কার্যালয়ে আত্মগোপন থাকাবস্থায় মঞ্জুকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর তাকে নিয়েই তার কার্যালয়ে অভিযান চালানো হয়।

গতকাল বুধবার রাতে ময়নুলের বিরুদ্ধে রাজধানীর ওয়ারী থানায় চাঁদাবাজির অভিযোগে একটি মামলা হয়। আজ দুপুরে তাঁর কার্যালয়ে অভিযান চালায় র‍্যাব-৩। কার্যালয়ে অভিযান শেষে ময়নুলের বাসায় অভিযান শুরু করেছে র‍্যাব।

কার্যালয়ে অভিযান শেষে র‍্যাব-৩-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল শাফি বুলবুল সাংবাদিকদের বলেন, গতকাল রাতে করা মামলায় কাউন্সিলর ময়নুল হককে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। তাঁর কার্যালয় থেকে মাদক দ্রব্য ও অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় তাঁর বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একাধিক মামলা করা হবে।

ডিএসসিসির ৩৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ময়নুল ওয়ারী থানা আওয়ামী লীগের নেতা। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কমিটির সদস্য ছিলেন তিনি।

ময়নুলের বিরুদ্ধে এলাকায় চাঁদাবাজি, দখলদারি, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকাসহ নানা ধরনের অভিযোগ রয়েছে। এসব ঘটনায় তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক মামলাও রয়েছে।

এত অভিযোগ থাকার পরও ময়নুলকে আগে কেনো গ্রেপ্তার করা হয়নি—এমন প্রশ্নে র‍্যাব-৩-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল শাফি বুলবুল বলেন, ময়নুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে ভয়ে কেউ তাঁর বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতেন না। এখন মোক্ষম সময়। তাই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

চলমান ক্যাসিনো-বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে ময়নুলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানান র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।

র্যা ব সূত্র জানায়, ক্যাসিনো ও জুয়ার আসর পরিচালনা, মাদক ব্যবসা, ফুটপাত নিয়ন্ত্রণ ও পরিবহন চাঁদাবাজিসহ নানা অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত