মঙ্গলবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং

নিষিদ্ধ হচ্ছেন সাকিব!

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

বড় একটি দুঃসংবাদ শুনতে যাচ্ছে বাংলাদেশের ক্রিকেট। প্রায় ২ বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের টেস্ট ও টি টোয়েন্টি দলপতি সাকিব আল হাসান।

দেশের প্রথম সারির একটি দৈনিক (মঙ্গলবার ২৯ অক্টোবর) সংবাদটি জানিয়েছে।

তাদের দেওয়া তথ্যমতে, বছর দুয়েক আগে আন্তর্জাতিক ম্যাচ চলাকালীন জুয়াড়ির (বুকি) কাছ থেকে একটি অনৈতিক প্রস্তাব পেয়েছিলেন সাকিব আল  হাসান। সেই প্রস্তাব তিনি প্রত্যাখ্যান করেছিলেন সত্যি, কিন্তু নিয়ামানুযায়ী আইসিসিরি দুর্নীতি দমন বিভাগকে তা জানাননি, গোপন রেখেছিলেন। বিষয়টি পরে আইসিসি জানতে পারে এবং আন্তর্জাতিক জুয়াড়িদের কল ট্র্যাক করে এ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে তথ্য উদ্ধার করে। ওই জুয়াড়ি আইসিসির কালো তালিকায় থাকাদের একজন।

বিষয়টি পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়ার পরে আইসিসি অ্যন্টি করাপশন অ্যান্ড সিকিউরিটি ইউনিট (আকসু) সাকিবের সঙ্গে কথা বলে। জানা গেছে ওই তদন্ত কর্মকর্থার কাছে সাকিব ভুল স্বীকার করেন। আত্মপক্ষ সমর্থন করে তিনি বলেন, ‘জুয়াড়ির প্রস্তাব গুরুত্ব দেইনি বলেই কাউকে জানাইনি।’

বিষয়টি হালকাভাবে নিয়েছিলেন লাল-সবুজের এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। যা তার জন্য কাল হয়ে দাঁড়াল। ১৮ মাসের জন্য সবধরণের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছেন সাকিব আল হাসান। যা নিঃসন্দেহে এদেশের ক্রিকেটের জন্য অপূরণীয় ক্ষতির কারণ।

আইসিসিরি দুর্নিতীদমন নীতিমালায় লেখা আছে, কোনো ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফ, আম্পায়ার, স্কোরার, গ্রাউন্ডসের সদস্য, জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কেউ জুয়াড়িদের কাছ থেকে কোনো ধরনের প্রস্তাব পেলে তাৎক্ষণিক তা বোর্ডের দুর্নীতি দমন ইউনিটকে জানাতে হবে। যতটা দ্রুত সম্ভব।

আইসিসি ইতোমধ্যেই সাকিবের ব্যাপারে বিসিবিকে বিস্তারিত জানিয়ে দিয়েছে। তাতে নির্দেশনা আছে জাতীয় দলের সঙ্গে অনুশীলন না করার। এ কারণেই জাতীয় দলের সঙ্গে গত দু’দিন অনুশীলন করেননি সাকিব।

ঠিক কতো বছরের জন্য লাল সবুজের এই দুর্দান্ত পারফর্মার নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছেন তা আজ অথবা কালের মধ্যেই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়ে দেবে বিসিবি।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত