মঙ্গলবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

আওয়ামী লীগ কেন ছাত্রদলের সম্মেলন বন্ধ করতে যাবে?

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির নেতৃত্বের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের কারণে ছাত্রদলের কাউন্সিল আটকে গেছে। এর পেছনে আওয়ামী লীগের কোনো হাত নেই।

শনিবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব নির্বাচনে শনিবার কাউন্সিল হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ছাত্রদলেরই এক সাবেক নেতার আবেদনের কারণে আদালত কাউন্সিল স্থগিতের আদেশ দেন।

ছাত্রদলের কাউন্সিল বন্ধের পেছনে সরকারের হাত রয়েছে- বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ কেন ছাত্রদলের সম্মেলন বন্ধ করতে যাবে? ছাত্রদলের নেতাদের মামলার কারণে তাদের কাউন্সিল বন্ধ হয়েছে। এখানেও শেখ হাসিনার দোষ, আওয়ামী লীগের দোষ?

তিনি বলেন, ছাত্রদল নিজেরা নিজেদের বিরুদ্ধে মামলা করে সম্মেলন বন্ধ করেছে। এর পেছনে বিএনপির নেতৃত্বের দ্বন্দ্বই দায়ী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘শেখ হাসিনার উন্নয়ন-অর্জন দেখলে এদেশে অনেকের আঁতে ঘা লাগে, যন্ত্রণা শুরু হয়। শেখ হাসিনার উন্নয়ন অর্জন ও তার অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশের বিরোধী রাজনীতির জন্য সংকটের কালো ছায়া নেমে এসেছে।’

দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে অনেক মন্ত্রী দুদকে হাজিরা দিচ্ছেন। আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী জেলে আছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আছেন বলেই দুর্নীতির বিরুদ্ধে এতসব শক্ত অবস্থান নেওয়া সম্ভব হয়েছে।’

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ আয়োজিত আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে জনগণের ক্ষমতায়ন দিবসে ৫০০ জন মাওলানার কোরআন খতম, মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠানে রাজনৈতিক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আপনারা সাংবাদিকতা করেন, আমিও আপনাদের অগ্রজ। আপনারা আজকের এমন একটি সুন্দর অনুষ্ঠানের শিরোনাম রাজনৈতিক করার জন্য ভিন্ন দিকে নিয়ে যাচ্ছেন। আপনারা প্রাসঙ্গিক না কেন? আজকের যেই অনুষ্ঠানে এসেছি, তাকে ভিন্ন দিকে নিয়ে যাচ্ছেন। মন্ত্রিত্ব গলে আমি আবার সাংবাদিকতায় আসব।’

আলোচনা সভার সভাপতি যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফরুক চৌধুরী মাসব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করে বলেন, ‘৯ সেপ্টেম্বর ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ ও ১১ সেপ্টেম্বর উত্তর যুবলীগ শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে জনগণের ক্ষমতায়ন দিবসের কর্মসূচি পালন করেছে। আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর ঢাকা জেলা ও ১৭ গাজীপুর জেলায় এ দিবস পালন করা হবে। এ ছাড়া সারাদেশে জেলা-উপজেলায় ২৮ সেপ্টেম্বর জনগণের ক্ষমতায়ন দিবস পালন করবে।’

দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, অর্থনীতি সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. আবুল বারকাত, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন, যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মির্জা আজম, যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ বাবলু।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত