সোমবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

শোকের মাস এলেই জঙ্গি-সাম্প্রদায়িক অপশক্তি সক্রিয় হয়ে ওঠে : ওবায়দুল কাদের

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হারানো শোকের মাস আগস্ট এলেই জঙ্গি, নাশকতাকারী ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তিগুলো সক্রিয় হয়ে ওঠে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তি‌নি ব‌লেন, শোকের মাসে ১৫ আগস্ট আমাদের চেতনায় শক্তি সঞ্চার করে। আর এই শোকের মাস এলেই অপশক্তিগুলো সক্রিয় হয়ে ওঠে। একদিকে আমাদের হারানোর বেদনা, আবার নতুন করে হারানোর সেই শঙ্কা কাজ করে আমাদের মধ্যে।

আগামী ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) যুবলীগ আয়োজিত মাসব্যাপী সংবাদ চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করার সময় তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে ‘৭৫ পরবর্তী সময়ে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ রাজনৈতিক নেতা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা। আগস্ট মাস এলে আমাদের প্রিয় এই নেতাকে ঘিরেই বিপদের আশঙ্কা থাকে। কারণ এই সময় অশুভ তৎপরতা যারা চালায়, তারা জেগে ওঠে। আমাদের তাদের বিষয়ে সর্তক থাকতে হবে। যুবলীগকে সর্তকতার সঙ্গে সব অনুষ্ঠান আয়োজন করতে হবে।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বাংলাদেশ রাজনীতি করে একটি দল, তারা ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ডে জড়িত। তারা এই হত্যাকাণ্ডের পৃষ্ঠপোষকতা করেছে, পেছন থেকে মদত জুগিয়েছে, খুনিদের পুর্নবাসিত করেছে। ইনডেমনিটি আইন জারি করে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচারের পথ বন্ধ করে দিয়েছে। তারা কারা? তাদের নেতা জিয়াউর রহমান। এ দেশে রাজনীতিতে হত্যাকারীদের পুর্নবাসন করেছে জিয়াউর রহমান।

শেখ হাসিনাকে বাংলাদেশের উদার রাজনীতির উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনা জানেন ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের কারা ছিল। শেখ হাসিনা জানেন, দেশের জনগণ জানে— ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার নেপথ্যে কারা ছিল। তারপরও গণতন্ত্রের স্বার্থে, সুশাসনের স্বার্থে আমার বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে কাজের সম্পর্ক রাখতে চাই।

শোকের মাস আগস্টের প্রথম দিনে আয়োজিত এ সভায় ওবায়দুল কাদের শেক্সপিয়ারের ট্র্যাজেডিক নাটক জুলিয়াস সিজারে সম্রাটের মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দিয়ে বলেন, ‘শেক্সপিয়ার আজ বেঁচে থাকলে সিজার নয় বরং পঁচাত্তরের হত্যাকাণ্ডকে ইতিহাসের নৃশংসতম রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড বলতেন। এ সময় পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার ঘটনাকে ইতিহাসের সবচেয়ে নৃশংসতম রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড বলে অভিহিত করেন তিনি।’

দেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ সম্পর্কে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘সিচ্যুয়েশন এলার্মিং, বাট বিয়োন্ড অন গো- আমাদের কন্ট্রোলের বাইরে নয়। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিদেশ থাকলেও কাজ বন্ধ ছিলো না। অনুমতি নিয়েই তিনি বিদেশে গিয়েছিলেন।’

এছাড়া ভুয়া জন্মদিন পালন বন্ধ না করলে বিএনপির সঙ্গে রাজনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলা কঠিন বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীরের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা সঞ্চালনা করে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত