রবিবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

শিক্ষায় জেন্ডার সমতার জন্য ছেলেদের সচেষ্ট হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

‘দেশে শিক্ষাক্ষেত্রে জেন্ডার সমতা আনতে ছেলেদের আরও সচেষ্ট হতে হবে। পরীক্ষাগুলোতে তাদের বেশি অংশ নিতে হবে।’ এ কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চলতি বছরে এইচএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তৃতায় এ কথা বলেন তিনি।

বুধবার (১৭ জুলাই) সকালে গণভবন থেকে এ ফল প্রকাশ করা হয়।

চলতি বছরে এইচএসসি পর্যায়ে ৭৩.৯৩ ভাগ পরীক্ষার্থী পাস করেছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭৪,২৮৬ পরীক্ষার্থী।এদের মধ্যে দেশের ৮ শিক্ষা বোর্ডে এইচএসসিতে পাসের হার ৭১.৮৫%। জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৪১ হাজার ৮০৭ জন। মাদ্রাসা বোর্ডে পাসের হার ৮৮ দশমিক ৫৬ শতাংশ। যাতে জিপিএ-৫ পেয়েছেন ২,২৪৩ জন। আর কারিগরি বোর্ডে পাসের হার ৮২ দশমিক ৬২ শতাংশ। এতে জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৩,২৩৬ জন।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এ সময় ফলগুলো আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করেন এবং ফলের কপি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে তুলে দেন। শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল সকল বোর্ডের প্রধান, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিবসহ অন্যরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ফলের নথি হাতে পেয়ে দেখতে পেলাম মেয়েরাই পরীক্ষায় বেশি অংশ নিয়েছে, আর পাসও মেয়েরা বেশি করেছে। একটা সময় বলা হতো মেয়েরা পিছিয়ে রয়েছে, এখন দেখছি মেয়েদের চেয়ে ছেলেরা পিছিয়ে যাচ্ছে, অতএব বলতেই পারি জেন্ডার সমতার জন্য ছেলেদের সচেষ্ট হতে হবে। আরও বেশি বেশি লেখাপড়ায় মনযোগী হতে হবে।

পরীক্ষা শেষ হওয়ার মাত্র ৫৫ দিনের মাথায় ফল প্রকাশ করতে পারায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়, সকল শিক্ষা, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ডসহ সকলকে ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, আমরা শিক্ষা ব্যবস্থাকে সুন্দরভাবে পরিচালনায় পরীক্ষার পর ৬০ দিনের মধ্যে ফল প্রকাশের জন্য বলেছি। এবছর তারও আগে ফল প্রকাশ করা সম্ভব হয়েছে। এটা দেখে খুব ভালো লাগছে।

যারা পাস করেছে ও ভালো ফল করেছে তাদের আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত