শনিবার, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে সমকামী বিয়ের বৈধতা দিল তাইওয়ান

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

তাইওয়ানের আইনপ্রণেতারা এশিয়ার প্রথম হিসেবে দেশটিতে সমকামী বিয়ের বৈধতা দিয়ে আইন পাশ করেছেন। এখন থেকে সমকামী যুগলেরা সরকারি এজেন্সির মাধ্যমে নিজেদের বিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

পার্লামেন্টে এই আইন পাশ দেশটির এলজিবিটি (লেসবিয়ান, গে, বাইসেক্সুয়াল ও ট্রান্সজেন্ডার) সম্প্রদায়ের বিজয় হিসেবে দেখা হচ্ছে। বছরের পর বছর বিয়ের অধিকার চেয়ে দ্বীপ দেশটিতে তারা আন্দোলন করে আসছেন। শুক্রবার (১৭ মে) প্রচণ্ড বৃষ্টি উপেক্ষা করে চূড়ান্ত ভোটের প্রাক্কালে তাদের পার্লামেন্ট ভবনের সামনে জড়ো হতে দেখা যায়।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে তাইওয়ানের সাংবিধানিক আদালত এক রায়ে সমকামী বিয়ের বৈধতা দেয়। আদালত পার্লামেন্টকে আইন পাশ করে রায় বাস্তবায়নের জন্য দুই বছরের সময় বেঁধে দিয়েছিল। চলতি বছরের ২৪ মে সেই সময় শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। তাই নির্ধারিত সময়ের আগেই আইন পাশ করল তাইওয়ানের পার্লামেন্ট।

এর আগে সমকামী বিয়ে প্রশ্নে তাইওয়ানে গণভোটের আয়োজন করা হয়। দেশটির অধিকাংশ ভোটাররা সমকামী বিয়ের বিপক্ষে ভোট দেয়। তখন সরকার জানায়, তারা প্রচলিত বিয়ের বাইরে ‘সমকামী’ বিয়ে বিষয়ে বিশেষ আইন পাশ করবে।

পার্লামেন্টে আইনপ্রণেতারা তিনটি বিল নিয়ে আলোচনা করেছেন। এরমধ্যে কনজারভেটিভ আইনপ্রণেতারা ‘সেম-সেক্স ফ্যামেলি রিলেশনশিপ্স’ ও ‘সেম সেক্স ইউনিয়ন’ প্রস্তাব করেছিলেন।

তবে সবচেয়ে উদার প্রস্তাবনাটি ছিল সরকারি দলের যে আইনটিতে ‘বিয়ে শব্দটি’ উল্লেখ করা হয়েছিল এবং বিশেষ বিবেচনায় ‘দত্তক’ নেওয়ার সুযোগ রাখা হয়েছে। সংশোধিত এই প্রস্তাবনাটিই আইনপ্রণেতারা পার্লামেন্টে পাশ করেন।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত