রবিবার, ২৬শে মে, ২০১৯ ইং

হাতজোড় করে ক্ষমা চেয়ে ভোট চাইলেন মমতা

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

প্রার্থীদের অতীত কর্মকাণ্ডের জন্য নিজে হাতজোড় করে ক্ষমা চেয়ে ভোট চাইলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

লোকসভা নির্বাচনের পঞ্চম দফা ভোট শুরুর একদিন আগে গত রোববার বেলপাহাড়িতে এক নির্বাচনী সভায় তিনি ভোটারদের কাছে এ আহ্বান জানান। খবর এনডিটিভির।

সভায় মমতা দলের স্থানীয় নেতাদের একাংশের দুর্নীতির কথা স্বীকার করে শুদ্ধকরণের আশ্বাস দেন।

মানুষের আবেগকে ‘সম্মান’ জানিয়ে তৃণমূলনেত্রী বলেন, ‘তৃণমূল ভালো হোক বা খারাপ হোক, দুটো চড় মারবেন। আপনাদের পায়ের কাছে পড়ে থাকবে। তৃণমূল না থাকলে উন্নয়নের কাজটা কে করবে?

এর পরেই সামান্য সুর চড়িয়ে তিনি বলেন, এতবার আসার পরও যখন দেখলাম অন্য দল মাথা তুলেছে (পঞ্চায়েত ভোটে), দুঃখ পেয়েছিলাম। আর দুঃখ দেবেন না। তা হলে আমার অভিমান হতে পারে।

‘পরিবর্তনে’র শাসনে অন্যতম বিজ্ঞাপন ছিল ‘জঙ্গলমহল হাসছে’। এই জোড়া শব্দেই গত আট বছরে জঙ্গলমহলে দলের সাফল্য দাবি করেছে তৃণমূল।

তবে পঞ্চায়েত ভোটে এই ঝাড়গ্রামের একটি বড় অংশ হাতছাড়া হয়েছে শাসক দলের। সে কথা মাথায় রেখেই এদিন মমতা বলেন, কখনও কখনও স্থানীয় দু-একজন নেতার ওপর রাগ করে মানুষভাবে তৃণমূলকে না দিয়ে ভোটটা বিজেপি, সিপিএম বা কংগ্রেসকে দিই।

এর পরেই স্থানীয় ওই নেতাদের কাজের দায় ঝেড়ে ফেলে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, তৃণমূল কাউকে মানুষের থেকে পয়সা নিতে বলে না। মানুষের কাজ করতে কাউকে নিষেধ করে না। দল যে এসব বরদাশত করে না, তার প্রমাণ দিতে গিয়ে মমতা বলেন, যারা এসব করেন, আমরা তাদের দল থেকে তাড়িয়ে দিই। মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, সব জায়গায় সবাই ভালো হয় না। রাজনীতিতে ২ শতাংশ খারাপ লোকও থাকে। তবে ৯৮ শতাংশ লোকই ভালো।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত