মঙ্গলবার, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

প্রত্যেক প্রতিবন্ধীকে ভাতা দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

নিউজগার্ডেনবিডডটকম:প্রত্যেক প্রতিবন্ধীকে ভাতা দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।তিনি বলেন, এদের জীবনটা যেন অর্থবহ হয় সেদিকে দৃষ্টি রেখেই আমরা কাজ করছি। আগামী বাজেটে দেশের ১৪ লাখ প্রতিবন্ধী শিশুকে বিশেষ ভাতার আওতায় আনা হবে। অটিজমে আক্রান্ত শিশুরা সমাজের বোঝা নয়; প্রত্যেক প্রতিবন্ধী ভাতা পাবে।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে (বিআইসিসি) ১২তম বিশ্ব অটিজম দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে উপস্থিত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তিনি ১২তম বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস-২০১৯ এর উদ্বোধন করেন।

অটিজম বিশেষ অবদান রাখায় অটিজম বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন সফল ব্যক্তিদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকার চেক, একটি ক্রেস্ট ও সম্মাননা প্রদান করা হয়।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধীরাও প্লাস্টিক দিয়ে সুন্দর সুন্দর শোপিস তৈরি করতে পারে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই প্রতিভাগুলো কাজে লাগিয়ে এদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা যায়। প্রতিবছর দুই ইদ ও বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে যে শুভেচ্ছা কার্ড ছাপা সেগুলোতে প্রতিবন্ধী বা অটিস্টিক শিশুদের আঁকা ছবি ব্যবহার করা হয় বলে জানান তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এই ছবিগুলো সংগ্রহ করে সায়মা (সায়মা ওয়াজেদ পুতুল) একটি অ্যালবামও বের করেছে। সেগুলো আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মানুষকে উপহার দিই। কিন্তু এগুলো আমি বিনা পয়সায় নিই না। তাদের শ্রমের মূল্যটা আমি অবশ্যই দিয়ে দিই।’

শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিবন্ধীদের সুরক্ষায় আইন প্রণয়ন করেছে সরকার। পিছিয়ে পড়া এই জনগোষ্ঠীর অধিকার আদায়ে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, অটিজম শিশুদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে সরকার। প্রতিটি বিভাগে অটিজম পরিচর্যাকেন্দ্র গড়ে তোলা হবে বলেও জানান তিনি। এ ক্ষেত্রে সরকারকে সহায়তা করার জন্য বিত্তশালীদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রতিবন্ধী বা অটিস্টিক জনগোষ্ঠী যেন আর অবহেলার শিকার না হয়, তারা যেন সমাজে যোগ্য স্থান পায় সেই প্রত্যাশা করেন শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘তারা আমাদেরই সন্তান, আমাদেরই ভাই-বোন। তাদের সঙ্গে মিলেমিশে চলতে অনুরোধ জানাই।’

বিশ্ব অটিজম দিবস পালন করায় জনসচেতনতা সৃষ্টি হচ্ছে, এখন আর কেউ অটিস্টিক বাচ্চা লুকিয়ে রাখে না বলেও মন্তব্য করেন শেখ হাসিনা।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত