শুক্রবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

আটতলাতেই আগুনের শুরু?

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

নিউজগার্ডেনবিডডটকম:

এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের দিন যারা ছিলেন তাঁদের কয়েকজন বলছেন, আটতলা থেকে আগুনের শুরু। তাঁদের আশঙ্কা, বৈদ্যুতিক গোলোযোগ থেকে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয় এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটিকে এমন কথা জানিয়েছেন তাঁরা।

আজ রোববার ঢাকার বনানীর সপুরা টাওয়ারে সাক্ষ্যগ্রহণ চলে। দুই ঘণ্টার সাক্ষ্যগ্রহণ পর্বে এফআর টাওয়ারের আটতলার কাউকে কমিটি পায়নি। এফ আর টাওয়ারের আটতলায় স্পেকট্রা এসএনএক্স নামে বায়িং হাউসের অফিস ছিল।

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে বনানীর কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউয়ের এফ আর টাওয়ারে আগুন লাগে। এখন পর্যন্ত বনানীর আগুনের ঘটনায় নিহত হয়েছেন ২৬ জন। রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতেরা।ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কমিটিও আজ সাক্ষ্যগ্রহণ করে। ফায়ার সার্ভিস বলেছে, সাক্ষাৎকারে ১২ জন বলেছেন, আটতলা থেকে আগুন লেগেছে।

ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক নিয়াজ আহমেদ বলেন, আটতলায় কোনো মৃতদেহ তাঁরা পাননি। মৃতেদেহগুলো ছিল ওপরের তলার দিকে। ধোঁয়া নিয়ম অনুযায়ী ওপরে গিয়েছে। শ্বাসরোধে মানুষ মারা গেছে।

সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বনানীর অস্থায়ী নিয়ন্ত্রণকক্ষে আটতলায় কর্মরত ছিলেন—এমন দুজন কর্মী আসেন। কর্মীদের একজনের নাম কফিলউদ্দীন ও অন্যজনের নাম মাঈনুদ্দীন। তাঁরা বলছেন, আটতলায় আগুন লাগেনি। কেন সময়মতো সাক্ষ্য দিতে আসেননি জানতে চাইলে দুজন বলেন, তাঁদের পরে আসতে বলা হয়েছে।

কফিলউদ্দীন সাংবাদিকদের বলেন, ঘটনার দিন অফিসের অন্যরা কারখানা পরিদর্শনে গিয়েছিলেন। অফিসে শুধু দুজনই ছিলেন। তাঁরা ধোঁয়া দেখতে পান এবং কাঁচ ভেঙে পড়তে দেখেন। মাঈনুদ্দীন বলেছেন, তাঁরা অফিসের অভ্যর্থনা কক্ষের সামনে ধোঁয়া দেখে বেরিয়ে যান।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত