রবিবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

‘গণতামাশার’ জন্য অনুমতি চাইলে পুলিশকে বলবেন কাদের

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

নিউজগার্ডেনবিডডটকম:  জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানির বিষয়ে কথা বলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, ‘গণশুনানি কাকে বলে? গণশুনানি না গণতামাশা? গণতামাশার জন্য অনুমতি চাইলে পুলিশ কমিশনারকে বলব।’

আজ মঙ্গলবার ঢাকার তেজগাঁওয়ে সড়ক ভবনে সড়ক ও জনপথ বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের প্রকৌশলী, প্রকল্প পরিচালক ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট অভিযোগ করেছে, তাঁদের গণশুনানির জন্য সরকার কোনো জায়গা দিচ্ছে না। এ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান তো আছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, সমালোচনা গণতন্ত্রের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো হতে পারে। বিরোধী দল না থাকলে, সমালোচনা না থাকলে শুদ্ধ হওয়া যায় না। কোনো ভুল করে থাকলে বিরোধী দলের গঠনমূলক সমালোচনা থেকে আমরা শুদ্ধ হতে পারি।

১৪ দলের সমালোচনা নিয়ে আওয়ামী লীগে কী ভাবে—সাংবাদিকের এই প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ১৪ দলের শরিকদের সমালোচনার বিষয়টিকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছি। তাঁরা আজকে মুখ খুলেছেন, সমালোচনা করছেন। সরকার ভালোভাবে চলার জন্য এই সমালোচনাটি দরকার ৷ এ সমালোচনা সংসদের বাইরের গণতন্ত্রে ইতিবাচক। গঠনমূলক বিরোধী দলের মাধ্যমে সংসদ আরও গতিশীল হতে পারে। তিনি বলেন, এ সমালোচনাগুলো আমাদের প্রয়োজন আছে। যদি আমরা কোনো ভুল করি, ভুলকে সংশোধন করার জন্য এ সমালোচনার প্রয়োজন। এটা অব্যাহত থাকলে গণতন্ত্রের জন্য ভালো।

আওয়ামী লীগ রাজনৈতিকভাবে পঙ্গু হয়ে যাবে, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নার এই বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ নয়, মামলা করতে করতে তাঁরা (ঐক্যফ্রন্ট) নিজেরাই পঙ্গু হয়ে যাবে।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত