শুক্রবার, ১লা অক্টোবর, ২০২০ ইং

পাকিস্তানের প্রথম হিন্দু নারী বিচারক

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: মুসলিম প্রধান রাষ্ট্র পাকিস্তানে প্রথম হিন্দু নারী বিচারক হতে যাচ্ছেন সুমন কুমারী। দেওয়ানি আদালতের জজ হিসেবে তিনি নিয়োগ পাবেন। সিন্ধু প্রদেশের কামবার-শাহদাদকত অঞ্চল থেকে আসা এই নারী তাঁর নিজ জেলাতেই দায়িত্ব পালন করবেন।

সুমন কুমারী হায়দরাবাদ থেকে এলএলবি পাস করেন। করাচির সেবিস্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একই বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

পিটিআইকে সুমন কুমারী বলেন, ‘আমার এ পেশায় আসার কারণ, আমি জানি, সিন্ধু প্রদেশের অনগ্রসর এলাকার গরিব লোকজনের আইনি বিষয়ে কতটা পরামর্শ দরকার। এখানে আসার পেছনে আমার বাবা ও পরিবারের অবদান অনেক বেশি। কারণ, আমাদের সম্প্রদায় থেকে এ পেশায় একজন নারীর আসাটা খুব সহজ নয়।’

সুমনের বাবা ড. পবন কুমার বোদানও চান, তাঁর মেয়ে গরিব লোকজনকে, বিশেষ করে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনকে বিনা পয়সায় আইনি পরামর্শ দিক। তিনি বলেন, ‘সুমন এক চ্যালেঞ্জিং পেশাকে বেছে নিয়েছে। কিন্তু আমি জানি, সে কঠোর পরিশ্রম ও সততা দিয়ে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছে যাবে।’

তবে পাকিস্তানে কোনো হিন্দু ব্যক্তির বিচারক হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম নয়। হিন্দু সম্প্রদায় থেকে আসা দেশটির প্রথম বিচারক হলেন রানা ভাগবানদাস। তিনি ২০০৫ ও ২০০৭ সালের মধ্যবর্তী সময় ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। গত বছর মহেশ কুমার মালানি নামের এক নারী সাধারণ পরিষদ নির্বাচনে জয়ী হন। তিনি প্রথম অমুসলিম ব্যক্তি, যিনি নির্বাচিত হয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত