বুধবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

কোনো প্রশ্নপত্রই গত বছর ফাঁস হয়নি : শিক্ষামন্ত্রী

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: সফলভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় গতবারই সাফল্য দেখিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, ‘কোনো প্রশ্নপত্রই গতবছর ফাঁস হয়নি। আমাদের সমস্যা হলো, আমরা সাফল্যের জায়গাগুলো সেভাবে তুলে ধরি না। কোথাও ব্যাত্যয় ঘটলেই সেটাকেই তুলে ধরি।’

অভিভাবকদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘পরীক্ষা এলেই আগাম প্রশ্নপত্রের খোঁজ না করে আপনার সন্তানকে পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত করুন।’

আজ শুক্রবার দুপুরে চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলার হাইমচর বালক সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫০ বছর পূর্তি ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ডা. দীপু মনি বলেছেন, ‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শিক্ষক সংকটও একটি সমস্যা। তাই সারা দেশেই এখন শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার বিগত দিনে স্বচ্ছতার মধ্য দিয়ে শিক্ষক নিয়োগ করেছেন। বর্তমানে এবং আগামীতেও স্বচ্ছতার মধ্যে দিয়ে শিক্ষক নিয়োগ হবে।’

দীপু মনি বলেন, ‘সরকার গত ১০ বছর সারা দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর অনেক সমস্যা সমাধান করার পাশাপাশি ব্যাপক অবকাঠামগত উন্নয়ন করেছেন। যদিও এক সাথে সব কাজ করা সম্ভব নয়। তাই পর্যায়ক্রমে কাজ করছে সরকার।’

শিক্ষকদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষার্থীদেরকে নিয়মিত পাঠদানের পাশাপাশি মানবিক গুনাবলী সম্পর্কেও শিক্ষা দিতে হবে। তারা যেন উভয় শিক্ষার মাধ্যমে বিশ্বমানের শিক্ষা অর্জন করতে পারে। এছাড়াও সকল শিক্ষকসহ যারা পরীক্ষা ব্যবস্থাপনার সাথে জড়িত তারা অবশ্যিই সর্তকতার সাথে সকল কার্য সম্পন্ন করবেন।’ তবে দায়িত্বে যদি কোনো ব্যাত্যয় ঘটে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

উপস্থিত সকলের প্রতি আহ্ববান আহবান জানিয়ে দীপু মনি বলেন, ‘শিক্ষকসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষকে তাদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে ভূমিকা রাখতে হবে। তাহলে আমরা একটি সুন্দর সমাজ গড়ে তুলতে পারব।’

হাইমচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সমর কান্তি বসাকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন- উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুর হোসেন পাটওয়ারী। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- হাইমচর উপজেলার কৃতি সন্তান ও পুলিশের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি, চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোহাম্মদ মঈনুল হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান প্রমুখ ।

 

Print Friendly, PDF & Email

মতামত