বুধবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

নিরপেক্ষ নির্বাচন পরিচালনায় পদক্ষেপ নিতে ইসি ব্যর্থ: ফখরুল

নিউজগার্ডেনবিডিডটকম: 

নিউজ গার্ডেন বিডিডট কম:  বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষভাবে পরিচালনার জন্য যেসব পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন, তা নিতে ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘সব দলের সঙ্গে আলোচনা না করে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। এতে প্রমাণ হয়, নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু, অবাধ নির্বাচন করতে আগ্রহী নয়। তাদের ভূমিকা দেখে আমরা হতাশ হয়েছি।’

মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) রাজধানীর মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতাদের বৈঠক শেষে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ২৫শে ডিসেম্বর খ্রিস্টানদের ধর্মীয় উৎসব। এর সাথে যোগ হবে নববর্ষের বড় দিনের অনুষ্ঠান। এমন বাস্তবতায় কিভাবে ৩০ তারিখ নির্বাচন করা সম্ভব হয়! নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের আসার কথা ছিল। অথচ নির্বাচন কমিশন যেভাবে শিডিউল ঠিক করেছে, তাতে বিদেশিদের আসার সুযোগ থাকবে না।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা নির্বাচন পেছানোর দাবির বিষয়ে এখনও অনড়। এজন্য আগামীকাল বুধবার ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে আমরা নির্বাচন কমিশনে যাব। এছাড়া, আগামী ১৬ তারিখ গুরুত্বপূর্ণ দৈনিক পত্রিকাগুলোর সম্পাদক ও পরে ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রধানদের সাথে ড. কামাল হোসেন মত বিনিময় করবেন।

নির্বাচন কমিশনের কাছে সারাদেশে জেলা প্রশাসক (ডিসি), পুলিশ সুপার, ইএনও, ওসিদের বদলি করার প্রস্তাব করবে ঐক্যফ্রন্ট। এসব বিষয় নিয়ে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী জানান, নির্বাচন কমিশন সঠিকভাবে চলছে না। সরকার ও যুক্তফ্রন্টের নেতা ড. এ কিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর ইশারায় চলছে। ওরা সঠিকভাবে নির্বাচন করতে পারবে কিনা আমার সন্দেহ আছে। এজন্য, মাঠ পর্যায়ে প্রশাসন রদবদল করতে হবে।

এদিকে, বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, আসন ভাগাভাগি নিয়ে ঐক্যফ্রন্টের নেতারা আলোচনা করেন। ড. কামাল হোসেনসহ শরীকদলগুলোর জন্য ১শ আসন চাওয়া হয়েছে বিএনপি’র কাছে। তবে, বিষয়টি এখনও সুরাহা হয়নি। আসন ভাগাভাগির বিষয়ে শিগগিরি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন তারা।

Print Friendly, PDF & Email

মতামত